নৌশেরায় ফের পাক গুলি, নিহত ২

আপডেট: মে ১৪, ২০১৭, ১২:২৮ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ফের অস্ত্রবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করল পাকিস্তান। শনিবার সকাল সোয়া ৭টা নাগাদ জম্মু–কাশ্মীরের নৌশেরা সেক্টরে নিয়ন্ত্রণ রেখা সংলগ্ন কালসিয়া গ্রামকে নিশানা করে গোলাগুলি ছুঁড়তে শুরু করে পাকিস্তানি সেনা। তাতে দুই স্থানীয় বাসিন্দার মৃত্যু হয়েছে। জখম হয়েছেন ৩ জন। রাজ্য পুলিশ সূত্রে খবর,‘বিনা প্ররোচনায় গত ২৪ ঘণ্টায় এই নিয়ে দ্বিতীয়বার অস্ত্রবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করল পাকিস্তান। তবে এবার সেনা ছাউনি উড়িয়ে দেয়া তাদের লক্ষ্য ছিল না। শুরু থেকেই নিয়ন্ত্রণ রেখা সংলগ্ন ভওয়ানি, বাবা খোয়ারি এবং কালসিয়ান- এই তিনটি গ্রামকে নিশানা করছে তারা। গ্রামবাসীদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া শুরু হয়েছে।’ সেনা মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল মনীশ মেহতা জানিয়েছেন, ‘শনিবার সকালে বিনা প্ররোচনায় আচমকা গোলাগুলি ছুঁড়তে শুরু করে পাকিস্তানি সেনা। স্বয়ংক্রিয় অস্ত্রশস্ত্র ব্যবহারের পাশাপাশি নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর ৮২ ও ১২০ মিলিমিটার মর্টার জাতীয় গোলাও ছুঁড়েছে তারা। ভারতীয় জওয়ানরাও পাল্টা জবাব দিয়েছে। গোলাগুলি চলাকালীন ১৫ বছর বয়সী কিশোরী আশিয়া ও তার বাবা মহম্মদ বশিরের মৃত্যু হয়েছে। ঝাঙ্গর এলাকায় বাড়ি তাঁদের। পাক সেনার ছোঁড়া গোলা এসে পড়ে সেখানে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় মেয়ে ও বাবার। জখম হয়েছেন মহম্মদ তুফেইলের স্ত্রী জাইতুন বেগম। জম্মু সরকারি হাসপাতালে তাঁর চিকিৎসা চলছে।’ নিরাপত্তার খাতিরে নৌশেরা, কিলা দরহল, মাঞ্জাকোটের সমস্ত স্কুল বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন রাজৌরির ডেপুটি পুলিশ কমিশনার শাহিদ চৌধুরি। এর আগে শুক্রবার সকালে জম্মুর আর্নিয়া সেক্টরে একদফা গোলাগুলি ছোঁড়ে পাকিস্তানি রেঞ্জাররা। বৃহস্পতিবার সকালে নৌশেরার পুখারণি গ্রামকে নিশানা করে গোলাগুলি ছোঁড়ে। তাতে প্রাণ হারান ১ মহিলা। জখম হন তাঁর স্বামী।- আজকাল