পত্নীতলায় উপজেলা কোয়াটারে দিনে-দুপুরে চুরি!

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৭, ১:৩৭ পূর্বাহ্ণ

পত্নীতলা প্রতিনিধি


নওগাঁর পত্নীতলায় উপজেলা কৃষি বিল্ডংয়ের সরকারি কোয়াটারের নিচ তলায় ফ্লাট বাসা থেকে সাড়ে ৭ ভরি স্বর্ণ ও বাংলাদেশি ৩২ হাজার টাকা এবং ভারতীয় দেড় লাখ টাকা চুরি যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় সাধারণ মানুষ আতঙ্কে ভুগছেন ও আইন শৃঙ্খলার অবণতি বিরাজ করছে বলে অভিজ্ঞ মহল দাবি করেছেন।
জানা যায়, গতকাল মঙ্গলবার সকালে উপজেলা জাতীয় মহিলা সংস্থায় কর্মরত মাঠ সমন্বয়কারী আমিনুল হক ও ট্রেড প্রশিক্ষিকা বিলকিস আক্তার দম্পতির উপজেলা কোয়াটারে এ ঘটনাটি ঘটেছে। ওই চাকুরিজীবী দম্পতি কোয়াটার থেকে সকাল ৯টার পর অফিস উদ্দেশ্য বের হন এসময় তাদের সন্তানও তাদের সাথে স্কুলের জন্য বের হয়। আমিনুল হক জানান, কিন্ডার গার্টেন পড়–য়া মেয়েকে নিয়ে স্কুল থেকে কোয়াটারে ফিরলে বেলা ১২টার দিকে চুরি যাওয়া ঘটনাটি টের পান তিনি। তিনি আরো জানান, ঘরের মেইন দরজার তালার কব্জা ভেঙে চোর প্রবেশ করে ও ভিতরের রুমের শোকেসের তালাবদ্ধ ড্রয়ার ভেঙে ওই ড্রয়ারে থাকা সাড়ে ৭ভরি স্বর্ণ ও বাংলাদেশি ৩২ হাজার টাকা এবং ভারতীয় দেড় লাখ টাকা চুরি করে নিয়ে যায়। বিলকিস আক্তার জানান, আমার চোখের চিকিৎসার জন্য পাসপোর্ট ও ভারতীয় দেড় লাখ টাকাসহ বিভিন্ন গহনা ছিল ওই শোকেসের ড্রয়ারে। অথচ, পাসপোর্ট ভিসা ও রূপা, সিটিগোল্ডের অলঙ্কারগুলো থাকলেও সব স্বর্ণের অলঙ্কার এবং টাকাগুলো চুরি গেছে।
এ ঘটনায় পত্নীতলা থানার পুলিশ চুরি যাওয়া কোয়াটারের বিভিন্ন তথ্য, উপাত্ত ও আলামত সংগ্রহ করেন এবং ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
পত্নিতলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাজহার ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনাটির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, চুরির রহস্য উদঘাটনে এবং এর সাথে জড়িতদের আটকের জন্য আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবদুুল মালেক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।