পাকিস্তানে না যাওয়া অনেকে ফিরলেন শ্রীলঙ্কা দলে

আপডেট: February 20, 2020, 1:26 am

সোনার দেশ ডেস্ক


শ্রীলঙ্কা সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেছে পাকিস্তানে। ওই সফর ‘বয়কট’ করেছিল নিয়মিত দলে থাকা ১০ খেলোয়াড়। তাদের অনেককে রেখে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ওয়ানডের দল ঘোষণা করেছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট (এসএলসি)। পাকিস্তানে না যাওয়া দিমুথ করুণারত্নেকেও ফেরানো হয়েছে নেতৃত্বে।
১৫ জনের দলে প্রত্যাবর্তন হয়েছে ২০১৯ সালের মার্চে সর্বশেষ ওয়ানডে খেলা নিরোশান ডিকভেলার। গত জুলাইয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে হোম সিরিজে বাদ পড়েছিলেন, পাকিস্তানেও যাননি। নিরাপত্তা ঝুঁকিতে ওই সফর থেকে সরে দাঁড়ানো কুশল পেরেরা, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, থিসারা পেরেরা ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজও তার সঙ্গে দলে ফিরেছেন।
ওপেনার নিয়ে বিপাকে পড়েছে শ্রীলঙ্কা। চোটের কারণে বাদ পড়েছেন নিয়মিত ওপেনার দানুশকা গুনাতিলকা। সেক্ষেত্রে সেহান জয়াসুরিয়াকে রেখেছেন নির্বাচকেরা। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে ওপেনিংয়ে নেমে ১২০ রান করেও উপুল থারাঙ্গার ডাক না পাওয়া বিস্ময়কর।
পেস আক্রমণ সাজানো হয়েছে নুয়ান প্রদীপ, লাহিরু কুমারা ও ইসুরু উদানাকে নিয়ে। গত বিশ্বকাপে সর্বশেষ ওয়ানডে খেলা সিনিয়র বোলার সুরাঙ্গা লাকমলের জায়গা হয়নি। স্পিনার দুজন ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা ও লক্ষ্মণ সান্দাকান।
করাচিতে ৩৬ ও ০ রান করায় জায়গা ধরে রাখতে পারেননি পাকিস্তানে ওয়ানডে দলের অধিনায়ক লাহিরু থিরিমান্নে। তারকাদের প্রত্যাবর্তনে স্বাভাবিকভাবে জায়গা হারিয়েছেন পাকিস্তানে যাওয়া মিনোদ ভানুকা, ওশাডা ফার্নান্ডো, কাসুন রাজিথা, সাদিরা সামারাবিক্রমা ও অ্যাঞ্জেলো পেরেরার মতো তরুণেরা।
অক্টোবর-নভেম্বরের ওই ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে সিনিয়ররা পাকিস্তানে না গেলেও পরে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলেছেন।
আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি কলম্বোতে হবে শ্রীলঙ্কা বনাম উইন্ডিজ প্রথম ওয়ানডে। ২৬ ফেব্রুয়ারি ও ১ মার্চ পরের দুই ম্যাচ হবে হাম্বানটোটা ও পাল্লেকেলেতে। শেষে দুটি টি-টোয়েন্টি খেলে সফর শেষ করবে উইন্ডিজ।
শ্রীলঙ্কা দল: দিমুথ করুণারত্নে (অধিনায়ক), আভিষ্কা ফার্নান্ডো, কুশল পেরেরা, সেহান জয়াসুরিয়া, নিরোশান ডিকভেলা (উইকেটকিপার), কুশল মেন্ডিস, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, থিসারা পেরেরা, দাসুন শানাকা, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, লক্ষ্মণ সান্দাকান, ইসুরু উদানা, নুয়ান প্রদীপ, লাহিরু কুমারা।