পাকিস্তানে ভারতীয় সিনেমা নিষিদ্ধে বলিউডের প্রতিক্রিয়া

আপডেট: আগস্ট ১১, ২০১৯, ১২:৩৯ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ভারতীয় সিনেমা নিষিদ্ধ করেছে পাকিস্তান সরকার। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের তথ্য ও সম্প্রচার বিভাগের বিশেষ সহকারী ফিরদাউন আশিক আওয়ান দেশটির গণমাধ্যমে জানিয়েছেন, ভারত সরকারের জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা (৩৭০ ধারা) বাতিলের জেরে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
এদিকে পাকিস্তানের এই সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেডারেশন অব ওয়েস্টার্ন ইন্ডিয়া সিনে ইমপ্লয়িসের প্রধান উপদেষ্টা অশোক পন্ডিত বলেন, ‘পাকিস্তান আমাদের সিনেমা দেখল কিনা এতে কিছু যায় আসে না। আমি মনে করি, দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা সবার আগে। সেখানে সিনেমা মুক্তি পেল কিনা সেটা অপ্রাসঙ্গিক। আমাদের সামনে একটি সুষ্পষ্ট ইস্যু রয়েছে। আমাদের চলচ্চিত্র শিল্প অনেক বড়। ব্যবসায়ীক দিক থেকেও এটি কোনো ব্যাপার না। আমরা দেশ নিয়ে কথা বলছি।’
পাকিস্তানের ইশক পজিটিভ সিনেমায় অভিনয় করেছেন সোনু সুদ। এই অভিনেতা বলেন, ‘পাকিস্তান ভারতীয় সিনেমা নিষিদ্ধ করেছে এটি তাদের ক্ষতি, আমাদের নয়। কিন্তু ৩৭০ ধারা বাতিল গত ৭২ বছরে ঘটা সবচেয়ে ভালো একটি বিষয়।’
নির্মাতা মধুর ভান্ডারকর বলেন, ‘আমি আশ্চর্য হইনি কারণ তারা ইতোমধ্যে অন্য আরো সম্পর্ক ছিন্ন করেছে। ৩৭০ ধারা বাতিল হয়েছে, এখন তাদের লোকজনের কাছে বড় কিছু দেখাতে হবে। পুলওয়ামা ঘটনার পর থেকে আমাদের চলচ্চিত্র শিল্প অনেক সংহতি দেখিয়েছে।’
অভিনেতা বিদ্যুৎ জামাল বেড়ে উঠেছেন জম্মুতে। তিনি বলেন, ‘প্রতিরক্ষা বাহিনীর সঙ্গে একত্রতা দেখিয়ে পুলওয়ামা আক্রমণের পর থেকেই পাকিস্তানে হিন্দি সিনেমা মুক্তি বন্ধ করা হয়েছে। জনসম্মুখে বিষয়টি নিয়ে আলোচনাও করা হয় না। ভারতীয় সিনেমা ধীরে ধীরে বৈশ্বিক বাজার তৈরি করছে। ৩৭০ ধারা বাতিল অনেক সাহসী ও খুবই প্রয়োজনীয় একটি সিদ্ধান্ত। এই বিষয়ের বিপরীতে যে কোনো সিদ্ধান্ত অবান্তর।’ ভারতীয় সিনেমা পাকিস্তানে নিষিদ্ধ হওয়ার বিষয়টি নতুন নয়। অতীতেও বিভিন্ন সময় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।-রাইজিংবিডি