বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

‘পাকিস্তানে মুশফিককে মিস করবে বাংলাদেশ’

আপডেট: January 20, 2020, 12:59 am

সোনার দেশ ডেস্ক


স্কোয়াডে থাকার মতো সম্ভাব্য ক্রিকেটারদের মধ্যে শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশের একজনই যাচ্ছেন না পাকিস্তানে। তিনি এমন একজন, যাকে ছাড়া দল ভাবাই কঠিন! পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে মুশফিকুর রহিমের অভাব দল তীব্রভাবে অনুভব করবে, বলছেন বাংলাদেশের কোচ রাসেল ডমিঙ্গো ও বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান।
পারিবারিক কারণে বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন মুশফিক। অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটার কারণ ব্যাখ্যা করে বলেছেন, পরিবারকে ভীত ও শঙ্কিত রেখে পাকিস্তানে যেতে চান না তিনি।
পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য বাংলাদেশের প্রস্তুতি শুরু হয়েছে রোববার। কঠিন এই চ্যালেঞ্জে দল পাচ্ছে না ব্যাটিংয়ের সবচেয়ে বড় ভরসাকে। মুশফিকের সিদ্ধান্তে পূর্ণ শ্রদ্ধা আছে ডমিঙ্গোর।
“মুশির সঙ্গে কথা হয়েছে আমার। সে যাচ্ছে না, এটা তার সিদ্ধান্ত ও এটিকে সম্মান জানাতেই হবে। আমার মতো সেও পরিবার অন্তপ্রাণ। তার যদি মনে হয়, এটিই তার পরিবারের জন্য ভালো, সেটিকে আমাদের সম্মান করা উচিত।”
মুশফিকের অভাব দল অনুভব করবে পাকিস্তানে, সেটি অকপটেই বললেন বাংলাদেশ কোচ। তবে তার আশা, অন্য কেউ এই সুযোগ লুফে নেবে।
“ভীষণভাবেই মিস করব, সে অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। বাংলাদেশের গ্রেট সে। তার অভিজ্ঞতার অভাব বোধ করবে দল। সম্প্রতি বিপিএলে ভালো করেছে, তার আগে ভারত সফরেও ভালো করেছে। তবে এটি অন্য একজনের জন্য সুযোগ পারফর্ম করার। একদিন মুশি খেলা ছেড়ে দেবে। আমাদের এমন ক্রিকেটার থাকতে হবে, যে মুশির জায়গায় এসে একই পর্যায়ে পারফর্ম করতে পারবে।”
রোববার কোচের আগে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। পাকিস্তান সফর নিয়ে নানা আলোচনায় তার কণ্ঠেও উঠে এলো মুশফিকের না থাকার প্রসঙ্গ।
“আমরা মুশফিককে অনেক মিস করব এখানে। সে আমাদের এই দলের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান। সবসময়ই নির্ভরযোগ্য ছিল, তবে এবার বিপিএল টি-টোয়েন্টিতে সে আবার প্রমাণ করেছে যে সে হচ্ছে সেরা। সেদিক থেকে যদি চিন্তা করেন, তাহলে আমরা ওকে অবশ্যই মিস করব। আরেকটি কথা হচ্ছে, সাকিব নেই। সাকিব-মুশফিক দুইজনই নেই। যারা ফর্মে আছে, তারা যদি না থাকে, সেটাতো আমাদের জন্য একটা দুর্ভাগ্য।”

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ