পাঞ্চোলির স্ত্রীর দিকে কঙ্গনার বোনের সমালোচনার তীর

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৭, ১:৩৬ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


সম্প্রতি সেলিব্রেটি শো ‘আপ কা আদালত’য়ে বলিউড প্রযোজক ও অভিনেতা আদিত্য পাঞ্চোলি’র বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ তুলেছিলেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। এবারে পাঞ্চোলির স্ত্রীকে নিয়ে টুইটারে সরব হলেন তার বোন রঙ্গোলি রানাউত।
ক্যারিয়ারের শুরুতে বলিউড প্রযোজক, অভিনেতা ও প্লেব্যাকশিল্পী আদিত্য পাঞ্চোলির সঙ্গে প্রেমে জড়িয়েছিলেন কঙ্গনা। সে সময় বিবাহিত ছিলেন আদিত্য তাই তাদের সম্পর্কের কথা গণমাধ্যমে খুব একটা চাউর হতে দেননি দুজনই। ‘আপ কা আদালত’য়ে আদিত্যর বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযাগ এনে কঙ্গনা বলেন, ঘরে আটকে রেখে তার উপর নির্যাতন চালিয়েছে আদিত্য। এমনকি এ ঘটনার কথা জানতেন তার স্ত্রী অভিনেত্রী জরিনা ওয়াহাব- এমনটাই দাবি করেন ‘কুইন’ অভিনেত্রী।
ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানায়, ১০ সেপ্টেম্বর ধারাবাহিক টুইট পোস্টে জরিনাকে উদ্দেশ্য করে রঙ্গোলি লিখেছেন, “আপনার স্বামীর সঙ্গে কঙ্গনার প্রেমের কথা আপনি জানতেন। এমনকি তাকে আটকে রেখে নিযাতন করার কথাও আপনার অজানা ছিলো না। তবুও একজন নারী হয়ে আপনি তাকে কোনো সাহায্যই করেননি। সে (কঙ্গনা) বয়সে আপনার মেয়ের চেয়েও ছোট। আপনার মতো নারীদের কারনেই নিপীড়ক শয়তানগুলো এ সমাজে টিকে আছে।”
পোস্টে রঙ্গোলি আরও জানান, নির্যাতনের কথা পুলিশকে না জানাতে কঙ্গনাকে হীরার অলংকার ও দামী পোশাক উপহার দেন পাঞ্চোলির স্ত্রী। এমনকি তাকে সঞ্জল লীলা বনসালীর সঙ্গেও পরিচয় করিয়ে দেন তিনি। নির্যাতনের কথা কাউকে না বলার জন্য কঙ্গনার বাড়িতে বিরিয়ানি রান্না করেও পাঠিয়েছিলেন তিনি- এমনটাই দাবি করেন রঙ্গোলি।
তবে কঙ্গনার এ বক্তব্যকে উড়িয়ে দিয়ে পাঞ্চোলি পত্নী জরিনা বলেন, “আমার স্বামী যদি এতই খারাপ মানুষ তবে তার সঙ্গে প্রেম করতে গিয়েছিলো কেন সে? প্রথমে যখন তাদের সম্পর্কের কথা আমার কানে আসে তখন আমার অনেক খারাপ লেগেছিলো। কিন্তু আমার সম্পর্কে সে যা বলেছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা।”
জরিনা ছাড়াও রঙ্গোলি’র আক্রোশের শিকার হয়েছেন ভারতীয় সংগীতশিল্পী সোনা মহাপাত্র। নতুন সিনেমা ‘সিমরান’য়ের প্রচারণা বাড়াতেই এসব করছেন কঙ্গনা- মহাপাত্রের এমন মন্তব্যের জবাবে কদিন আগেই ট্ইুটারে সরব হতে দেখা গেছে রঙ্গোলিকে। ১৫ সেপ্টেম্বর মুক্তি পাচ্ছে কঙ্গনার নতুন ছবি ‘সিমরান’। হংসল মেহতা পরিচালিত এ সিনেমায় প্রথমবারের মতো একজন চোরের ভূমিকায় অভিনয় করতে দেখা যাবে তাকে।