‘পাঠাও’ চালক অপূর্ব!

আপডেট: অক্টোবর ১০, ২০১৮, ১২:০৮ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


বাইক চালানো অপূর্ব’র নেশা। বাইক নিয়ে দিন-রাত টইটই করে ঘুরে বেড়ানো ছাড়া তার বুঝি আর কোনও কাজ নেই। বাবা-মা’র একমাত্র সন্তান হলেও সংসারের কোনও কাজে নেই তিনি। আবার প্রেমিকার মনরক্ষার বিষয়েও কোনও ভ্রুক্ষেপ নেই। মন নেই পড়াশোনাতেও। বরং তার সকল আগ্রহ নিজের বাইকটিকে ঘিরে!
শুধু এই কারণে প্রেমিকা শবনম ফারিয়া একরকম বিরক্ত হয়েই ব্রেকআপে যান। ছেলের প্রতি অভিমান নিয়ে হঠাৎ মারা যান বাবা। সংসারের ভার আসে অপূর্বর কাঁধে। বাবা নেই, প্রেমিকাও চলে গেল- এমন পরিস্থিতিতে ভয়ঙ্কর এক বিপাকে পড়ে যান অপূর্ব। কারণ, এক জীবনে বাইক চালানো ছাড়া আর কোনও কাজই করেননি তিনি।
অপূর্বর এমন পরিস্থিতিতে তার সামনে আলাদিনের আশ্চর্য প্রদীপ হিসেবে ধরা দেয় নাগরিক যোগাযোগমাধ্যম ‘পাঠাও’ অ্যাপস। যে বাইক তার সারা দিনের সঙ্গী ছিল সেই বাইকই হয়ে যায় জীবিকার একমাত্র অবলম্বন। বদলে যেতে থাকে অপূর্বর অন্ধকার সময়ের গল্প।
এমন গল্প নিয়ে সম্প্রতি নির্মিত হলো এক ঘণ্টার বিশেষ নাটক ‘জীবনের দিন-রাত’। রিফাত আদনান পাপনের রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন নাজমুল রনি।
এতে অপূর্ব অভিনয় করেছেন জীবন চরিত্রে আর শবনম ফারিয়াকে দেখা যাবে প্রেমিকা মিতু হিসেবে। নাটকটির অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করেন শেলী আহসান, আশরাফুল আলম সোহাগ, মনির, তালহা খান প্রমুখ।
‘জীবনের দিন-রাত’ নাটকটি প্রসঙ্গে অপূর্ব বলেন, ‘জীবন খুবই আহ্লাদি একটি ছেলে। জীবন নিয়ে সিরিয়াস না। জীবনযুদ্ধে সবাইকে নামতে হয়। সব সময় মাথার ওপর ছায়া থাকে না। একটা সময় নিজের ছায়াটা নিজেকেই বানাতে হয়। নাটকের ম্যাসেজ হচ্ছে এটি। কাজটি করে ভালো লেগেছে, প্র্যাকটিকেল লাইফের গল্প এটি।’
পাঠাও নিবেদিত, ফ্যাক্টর থ্রি সলিউশনস প্রযোজিত ‘জীবনের দিন-রাত’ নাটকটি প্রচার হবে ১৯ নভেম্বর রাত ৯টায় নাগরিক টিভিতে। তথ্যসূত্র: বাংলা ট্রিবিউন