বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

পাবনায় ওসির বিরুদ্ধে নিহতের বাবাকেই ফাঁসানোর অভিযোগ

আপডেট: December 5, 2019, 1:17 am

সোনার দেশ ডেস্ক


পাবনার ফরিদপুর থানায় হত্যা মামলা না নিয়ে উল্টো নিহতের বাবাকে ডাকাতি মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগ উঠেছে ওসির বিরুদ্ধে।
এ ঘটনায় ওসি আবুল কাশেমের বিচার দাবিতে বুধবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে বিক্ষোভ মিছিলসহ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন ফরিদপুর থানার গোপালনগর গ্রামের মানুষ।
তবে ওসি কাশেম অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।
ওই গ্রামের জাহিদুল ইসলাম বাবু বলেন, বছর চারেক আগে পাশের গোলকাটা গ্রামের সিঙ্গাপুর প্রবাসী সফর আলীর সঙ্গে তার মেয়ে আশার বিয়ে হয়।
“সম্প্রতি এক নারীর পরকীয়া সম্পর্কের ঘটনা জেনে ফেলায় আশাকে তার শ্বশুরবাড়িতে গত ৩ অক্টোবর মারধর করে মুখের ভেতর বিষ ঢেলে দেয়। খবর পেয়ে আমরা তাকে প্রথমে ফরিদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৪ অক্টোবর আশার মৃত্যু হয়।”
এ ঘটনায় পুলিশ মামলা নেয়নি বলে তার অভিযোগ।
বাবু বলেন, “থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ মামলা না নিয়ে উৎকোচের বিনিময়ে উল্টো আমার বিরুদ্ধে ডাকাতিসহ দুটি মিথ্যা মামলা দিয়ে কারাগারে পাঠায়। পরে জামিনে বের হয়ে গত ২৮ নভেম্বর পাবনার আমলি আদালতে পাঁচনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করি।”
ওই আদালতের বিচারক মো. মুরাদ জাহান মামামলাটি গ্রহণ করে তা তদন্তের জন্য ফরিদপুর থানায় পাঠালেও পুলিশ মামলাটি আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করছে বলে স্বজনদের অভিযোগ।
তবে উৎকোচ নেয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে ওসি আবুল কাশেম বলেন, “আশা নামে কেউ হত্যার স্বীকার হয়নি।”
এ বিষয়ে পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম বলেন, “বিষয়টি আমি শুনেছি। খোঁজ নিয়ে গুরুত্বের সঙ্গে তদন্তের জন্যে ওসিকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
মানববন্ধনে বনওয়ারীনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আজাহার আলী সরকার, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি শাহাদত হোসেন খান ছিলেন।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ