পাবনায় পাঁচ হাজার টিউবওয়েল বন্ধ || তীব্র পানি সঙ্কট

আপডেট: মার্চ ৮, ২০১৮, ১২:২৯ পূর্বাহ্ণ

পাবনা প্রতিনিধি


পাবনার সুজানগরে ভূগর্ভস্থ পানির স্তর অত্যন্ত নীচে নেমে গেছে। এতে উপজেলার প্রায় ৫ হাজার টিউবওয়েল বন্ধ হয়ে গেছে। আর ওই সকল টিউবওয়েল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে বিশুদ্ধ পানীয়জলের তীব্র সঙ্কট দেখা দিয়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সুজানগর পৌরসভাসহ উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের বাসা-বাড়ি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রায় ৫৫ হাজার হস্তচালিত টিউবওয়েল রয়েছে। এর মধ্যে ব্যক্তি পর্যায়ে প্রায় ৫০ হাজার এবং সরকারি পর্যায়ে ৫ হাজার টিউবওয়েল রয়েছে। প্রচণ্ড খরার কারণে ভূগর্ভস্থ পানির স্তর অস্বাভাবিক নীচে নেমে যাওয়ায় সরকারি এবং ব্যক্তি পর্যায়ের প্রায় ৫ হাজার টিউবওয়েল বন্ধ হয়ে গেছে। এতে উপজেলার মানিকহাট, তারাবাড়ীয়া, কুড়িপাড়া, এবং মোমিনপাড়াসহ বিভিন্ন গ্রামে হাজার হাজার পরিবার তীব্র পানি সঙ্কটে পড়েছেন। পানির অভাবে রান্না থেকে শুরু করে দৈনন্দিন নানা কাজ-কর্ম ব্যাহত হচ্ছে। পানির চাহিদা মেটাতে ভুক্তভোগি পরিবারের লোকজন ছুটে যাচ্ছেন দূর-দূরান্তের টিউবওয়েলে। তবে দূর-দূরান্তের টিউবওয়েল থেকে টেনে আনা পানি দিয়ে রান্না এবং খাওয়ার চাহিদা মিটলেও গোসলসহ অন্যান্য কাজ-কর্ম করতে দুভোর্গ পোহাতে হচ্ছে।
মানিকহাট গ্রামের আবদুল বাতেনের স্ত্রী সুফিয়া খাতুন জানান, গত ১০-১২দিন আগে তার টিউবওয়েলে পানি উঠা বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে তিনি দূরে অন্যের টিউবওয়েল থেকে পানি টেনে এনে খাচ্ছেন। কোথাও কোথাও গভীর নককূপেও পানি উঠছে না। এতে সেচ কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে বলে উপজেলার তৈলকুন্ড গ্রামের কৃষক আনোয়ার হোসেন জানান। এ ব্যাপারে জনস্বাস্থ্য উপ-সহকারী প্রকৌশলী নুরজাহান খাতুন বলেন ফাল্গুন ও চৈত্র মাসে ভূগর্ভস্থ পানির স্তর অস্বাভাবিক নীচে নেমে যায়। ফলে এ সময় অনেকের টিউবওয়েলে পানি উঠেনা। তবে ভারি বৃষ্টি হলে বন্ধ টিউবওয়েল আবার সচল হয়ে যায়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ