পাল্টে গেছে গ্রামিণ জনপদ || তানোরে চলতি বছরে সাড়ে ৫ কোটি টাকার প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন

আপডেট: জুন ১৩, ২০১৯, ১২:১৭ পূর্বাহ্ণ

লুৎফর রহমান, তানোর


তানোরে নবনির্মিত গ্রামিণ সড়ক-সোনার দেশ

রাজশাহী তানোরে গ্রামিণ জনপদের অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষন এবং সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে মহাপরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করায় গ্রামীণ জনপদের দৃশ্যপটের চিত্র পাল্টে গেছে।
জানা গেছে, তানোরের গ্রামিণ জনপদের উন্নয়নে মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করে কাজের বিনিময়ে খাদ্য কর্মসূচি ‘কাবিখা’ ও কাজের বিনিময়ে টাকা ‘কাবিটা’, টেস্ট রিলিফ ‘টিআর’ ও ৪০ দিনের কর্মসৃজন কর্মসূচি এবং এলজিএসপি প্রকল্পের মাধ্যমে গ্রামীণ জনপদের রাস্তা-ঘাট, সেতু-কালভার্ট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান এবং বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানে ব্যাপক উন্নয়ন করা হয়েছে। এছাড়াও প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার তরিকুল ইসলামের সঠিক তথ্যাবধনে চলতি অর্থবছরে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে গ্রামিণ জনপদের বিভিন্ন এলাকায় সেতু নির্মাণসহ প্রায় ৫ কোটি ৭০ লাখ টাকার কাজ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে।
উপজেলার প্রত্যন্ত ও দুর্গম পল্লী এলাকার মানুষের জীবনমান উন্নয়ন ও যোগাযোগ ব্যস্থা সহজ করতে সড়ক যোগাযোগ ও গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষন উন্নয়নে ব্যাপক উন্নয়ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। এসব প্রকল্পের কাজ শুরু করায় প্রত্যন্ত ও দুর্গম পল্লীর বাসিন্দাদের ব্যাপক উৎসাহ ও উদ্দীপনা বিরাজ করছে। গ্রামিণ জনপদের এসব এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে সড়কে নতুন সেতু-কালভার্ট নির্মাণ ও সংস্কার না হওয়ায় এসব এলাকার হাজার হাজার মানুষকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে এবং প্রতিনিয়ত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে উপজেলা ও জেলা সদরে যাতায়াত করতে হতো।
এসব হাজারো মানুষের দুঃখ লাঘব ও এলাকার অর্থনৈতিক উন্নতি সাধনের জন্য এসব এলাকায় সড়কে-নতুন ব্রিজ-কালভার্ট নির্মাণ ও সংস্কারের কাজ শুরু করা হয়েছে। এসব সড়কে নতুন ব্রিজ-কালভার্ট নির্মাণ ও সংস্কার কাজ সম্পন্ন করা হলে মানুষের জীবনমান উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির পাশপাশি গ্রামিণ জনপদের চিত্র পাল্টে যাবে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, তানোরে ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরে কাবিখা-কাবিটা ও টিআর মোট ১৮৩টি প্রকল্পের বিপরীতে প্রায় ২৪০ মেট্রিকট্রন খাদ্যশস্য ‘চাল’ বরাদ্দ করা হয়েছে এসবের বাজার মূল্য প্রায় এক কোটি ৪০ লাখ ৩৩ হাজার ২৭৯ টাকা, সুফলভোগীর সংখ্যা প্রায় ৫০ হাজার। এছাড়াও ৪০ দিনের কর্মসৃজন কর্মসূচিতে মোট ৩৪টি প্রকল্পের বিপরীতে প্রায় ৮৮ লাখ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে ১ হাজার ১০০ জন শ্রমিক ৪০ দিন করে কাজ করেছে, সুফলভোগীর সংখ্যা প্রায় ৫০ হাজার মানুষ। আবার এইচবিবি রাস্তা দেড় কিলোমিটার প্রায় ৬৬ লাখ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে সুবিধাভোগীর সংখ্যা প্রায় ৭০ হাজার মানুষ।
এব্যাপারে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ‘পিআইও তরিকুল ইসলাম বলেন, এমপি মহোদয়ের নির্দেশে কঠোরভাবে ব্রিজ-কালভার্টসহ প্রতিটি কাজ দেখভাল করা হয়েছে। তিনি বলেন, এসব ব্রিজ-কালভার্ট নির্মাণ কাজ সর্ম্পূন্ন হওয়ায় প্রত্যন্ত এলাকায় গ্রামিণ জনপদের হাজারো মানুষের দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ লাঘব হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ