পুঠিয়ায় নি¤œমানের সার বিক্রির দায়ে দুই কোম্পানিকে জরিমানা

আপডেট: অক্টোবর ৮, ২০১৯, ১:০৫ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


রাজশাহীর পুঠিয়ায় নি¤œমানের বোরন ও দস্তা সার বিক্রি করায় এমএএইচ ক্রপ কেয়ার ও গ্রীণ জেনেসিস এগ্রিকালচারাল ইন্ডাস্ট্রিজ নামের দুটি কোম্পানিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া কোম্পানি দুটির গোডাউনে ৬টি পদের ১৩৮ কেজি নি¤œমানের সার জব্দ করে ধ্বংস করা হয়েছে।
গতকাল সোমবার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে উপজেলার কাঁঠালবাড়িয়া মহল্লায় অবস্থিত এমএএইচ ক্রপ কেয়ার ও গ্রীণ জেনেসিস এগ্রিকালচারাল ইন্ডাস্ট্রিজ নামের কোম্পানি দুটির নিজস্ব গোডাউনে অভিযান চালানো হয়। কোম্পানি দুটির গোডাউনে ৬টি পদের ১৩৮ কেজি নি¤œমানের সার জব্দ করে ধ্বংস করা হয়। পরে এমএএইচ ক্রপ কেয়ারের পরিচালক মাহাবুর রহমান ও গ্রীণ জেনেসিস এগ্রিকালচারাল ইন্ডাস্ট্রিজের পরিচালক মনিরুজ্জামানের কাছে জরিমানার টাকা আদায় করা হয়।
উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের সহযোগিতায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমান আদালত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ওলিউজ্জামান।
ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, এই দুটি কোম্পানিসহ বিভিন্ন কোম্পানির পণ্যের গুণগত মান পরিক্ষার জন্য প্রোডাক্টের নমুনা ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। সেখানে দুটি কোম্পানির ৬টি পন্যের গুনগত মান নি¤œমানের পাওয়ায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয় এবং সেগুলো জব্দ করে দুটি কোম্পানিকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।
পণ্যগুলো হলো, এমএএইচ ক্রপ কেয়ারের মেট্রো বোরণ (৭.৫ কেজি) মেট্রো জিংক (মনো) (৪ কেজি), মেট্রো জিংক চিলেটেড (১৭ গ্রাম) এবং গ্রীণ জেনেসিস এগ্রিকালচারাল ইন্ডাস্ট্রিজ এর বাদশাহ জিপসার (২০ কেজি), বাদশাহ জিংক (চিলেটেড) (৮৫ গ্রাম), গ্রীণ বোরণ (৫ কেজি)।
কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার কামরুল ইসলাম বলেন, কৃষি ও কৃষকের স্বার্থে বালাইনাশকের নিয়মিত মনিটরিং আমরা করে থাকি। তারই ধারাবাহিক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আমরা কোম্পানি দুটির অণুসার ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষার জন্য পাঠাই। পরীক্ষার রিপোর্টে পন্যগুলোর গুণগতমান নি¤œমানের ছিলো। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নি¤œ মানের পণ্যগুলো কৃষক কিনে যেমন প্রতারিত হবেন, তেমনি এগুলো জমিতে ব্যবহার করলে ফসল ও জমি দুটিরই ক্ষতি হবে।
ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও নির্বাহী কর্মকর্তা ওলিউজ্জামান বলেন, নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে সেখানে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়েছে। এছাড়াও মাদক জুয়া বাল্যবিয়ের বিরুদ্ধে আমাদের নিয়মিত অভিযান চলছে। এটা অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।