পুরোদমে বোলিং শুরু করলেন মাহমুদউল্লাহ

আপডেট: আগস্ট ১৯, ২০১৯, ১:১৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


প্রায় ছয় মাস ভুগিয়ে সেরেছে কাঁধের ব্যথা। এখন আর সাইড আর্ম ডেলিভারি দিতে হচ্ছে না। মাথার ওপর থেকে নিজের স্বাভাবিক ডেলিভারিগুলো দিতে পারছেন। আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের আগে পুরোদমে বোলিং শুরু করতে পেরে ভীষণ উচ্ছ্বসিত মাহমুদউল্লাহ।
নিউজিল্যান্ড সফরে গত ২০ ফেব্রুয়ারিতে তৃতীয় ওয়ানডেতে ডাইভ দিতে গিয়ে ডান কাঁধে চোট পান মাহমুদউল্লাহ। সেই ব্যথা সফরের বাকি সময়টায় বেশ ভোগায় তাকে। আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ ও ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপে বোলিং করতে পারেননি এই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার।
শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে করেন ১ ওভার, তৃতীয়টিতে ৩ ওভার। নিজের স্বাভাবিক বোলিং করতে পারেননি সে সময়। রোববার মিরপুরে জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমি মাঠে রোববার ফিজিও বায়েজিদুল ইসলামের তত্ত্বাবধানে বোলিং অনুশীলন করেন মাহমুদউল্লাহ। ৬ ওভার বোলিং করার পর জানান, এখন একদমই ব্যথা মুক্ত তিনি।
“বোলিংটা আমি খুব মিস করছিলাম কারণ এটা আমাকে বাড়তি একটা আত্মবিশ্বাস দেয় ব্যাটিংয়ে। মনে করি যে, ব্যাটিংয়ে না পারলেও বোলিং দিয়ে দলের জন্য কিছুটা অবদান রাখতে পারি। এখন ভালো লাগছে। আশা করি, সুস্থ থাকলে আসন্ন সিরিজে হয়ত বোলিং করতে পারব।”
বায়েজিদ জানান, চোট পাওয়ার পর থেকে এই মুহূর্তে সবচেয়ে ভালো অবস্থায় আছেন মাহমুদউল্লাহ। অভিজ্ঞ এই অলরাউন্ডার মনে করেন, শতভাগ ফিট হয়ে নতুন মৌসুম শুরু করতে যাচ্ছেন তিনি।
“কাফ মাসলে যে ব্যাথাটা ছিল সেটা অনেক নেই। এখন শতভাগ ফিট আমি। কাঁধের অবস্থা আগের চেয়ে অনেক ভালো। ফিজিও বায়েজিদ ভাই এবং ডাক্তার দেবাশীষ চৌধুরী পরীক্ষা করেছেন।”
শ্রীলঙ্কা সিরিজের পর কিছু দিন ছুটি পেয়েছিলেন ক্রিকেটাররা। মাহমুদউল্লাহ জানান, সতেজ হয়ে নতুন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে তারা প্রস্তুত।
“এই কয়দিন যখন আমরা বিশ্রামে ছিলাম তখন উদগ্রীব ছিলাম যে, কবে মাঠে আসবো। কখন আবার ব্যাটিং, বোলিং করবো, স্কিলের কাজগুলো করবো। তবে মাঝে মাঝে কিছু ছোট বিরতি আপনাকে সতেজ করবে, আপনি আরেকটু চিন্তা করার সময় পাবেন।”
“আপনি বিগত সিরিজগুলোতে কি করেছেন বা কোথায় ভুল করেছেন – ব্যাটিং কোচের সঙ্গে আলাপ করে আপনি আবারও ঘুরে দাঁড়াতে পারেন। আমার মনে হয়, পরিশ্রমের কোনো বিকল্প নেই। এটি আমি সবসময় বলি এবং বিশ্বাস করি। আপনি যতো বেশি পরিশ্রম করবেন এর ফল আপনি পাবেন অবশ্যই পাবেন। আমি এখন পুরোপুরি প্রস্তুত।”