বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

পুষ্প মেলায় সেরা ২৬৫ প্রজাতির গোলাপের স্টল

আপডেট: February 19, 2020, 12:58 am

নিজস্ব প্রতিবেদক


পুষ্প মেলার সমাপনী দিনে সেরাদের পুরস্কার তুলে দেয়া হয় সোনার দেশ

নগরীতে গত শুক্রবার শুরু হয়েছিল ওয়ান ব্যাংক পুষ্প মেলা ২০২০। মেলাকে কেন্দ্র করে পুষ্পপ্রেমিদের মিলন মেলায় পরিণত হয়েছিল মেলা প্রাঙ্গণ। মিলন মেলার সবচেয়ে বড় আসর বসেছিল মেলার শেষ দিনে। সচরাচর পাওয়া যায় না এমন বিভিন্ন প্রজাতির ফুল নিয়ে হাজির হয়েছিলেন, বিভিন্ন নার্সারি মালিক। আর নিজের পছন্দের সেই ফুলের গাছ কিনতে শেষ সময়ে ছিল পুষ্পপ্রেমিদের ভিড়।
পুষ্পপ্রেমিদের জন্যে রকমারি ফুলের সমাহার নিয়ে নগরীর সিএন্ডবি মোড়ের নানকিং চত্বরে জমে ওঠা পুষ্প মেলার শেষও হয়েছে গতকাল মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে। পুষ্পমেলা উপলক্ষে অনুষ্ঠিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও প্রতিযোগিতায় ১০৭ জনকে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে পুর¯ৃ‹ত করা হয়। মৌসুমি ক্যাটাগরিতে সেরা নির্বাচিত হয়, বুশরা নার্সারী।
মেলায় ২৪ টি স্টলে মধ্যে একখণ্ড গোলাপের রাজ্য নিয়ে স্টল সাজানো আহম্মেদ ভিলা স্টলকে গোলাপে সেরা ঘোষণা করা হয়। এ স্টলটির মালিক ইসমাইল হোসেন। তার স্টলে দেশি-বিদেশি ২৬৫ প্রজাতির গোলাপ স্থান পেয়েছিল। এসব প্রজাতির মধ্যে আকর্ষণীয় কিছু প্রজাতি হলোÑ ডাবল বাল্ক, রামবা, নীল ডাইমোন, প্যারাডাইস ইত্যাদি।
আহম্মেদ ভিলা স্টলের মালিক ইসমাইল হোসেন বলেন, আজকে গোলাপে সেরা নির্বাচিত হওয়ায় আমি অত্যন্ত খুশি। আমি আমার স্টলটি মনের মতো করে সাজিয়ে দর্শনার্থীদের সামনে উপস্থাপন করেছিলাম। এছাড়া গোলাপের বড় একটা কালেকশন আমার কাছে ছিল যা অন্য কোন নার্সারিতে ছিল না। যার কারণে হয়তো আমি সেরা নির্বাচিত হয়েছি। এছাড়া আমার নার্সারির প্রতিটা গাছে তার সংক্ষিপ্ত পরিচিত আকর্ষনীয়ভাবে দেয়ার চেষ্টা করেছিলাম। এতে দর্শনার্থীরা গাছ না কিনলেও গাছ সর্ম্পকে জানতে পেরেছে।
এদিকে বৈকালী সংঘের আয়োজনে ৫ দিনব্যাপি ওয়ান ব্যাংক পুষ্পমেলা ২০২০ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে বৈকালি সংঘের সভাপতি এওয়াইএম মনিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক সুলতান মাসুদ আহম্মেদ, ওয়ান ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট আব্দুল মান্নান। অনুষ্ঠানে বক্তব্যে রাখেন, বৈকালী সংঘের সাধারণ সম্পাদক রইস উদ্দিন আহমেদ বাবু, পুষ্পমেলার আহ্বায়ক শরিফুল আবেদীন।