প্রবৃদ্ধিতে ১১ শতাংশই এসএমই’র অবদান : পরিকল্পনামন্ত্রী

আপডেট: এপ্রিল ১৭, ২০১৭, ১২:১৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, জাতীয় প্রবৃদ্ধিতে ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের (এসএমই ) অবদান ১১ শতাংশ। উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে এ খাতের অবদান আরও বাড়াতে হবে। এজন্য এসএমই খাতের উন্নয়নে সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি বেসরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহকে এগিয়ে আসতে হবে। শনিবার হোটেল ওয়েস্টিনে সিটি ফাউন্ডেশন আয়োজিত ১২তম সিটি ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।
অর্থনীতিবিদ ড. ওয়াহিদ উদ্দীন মাহমুদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান, বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এসকে সুর চৌধুরী অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন।
কামাল বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে সরকার নানা অবকাঠামোগত উন্নয়নসহ শিক্ষা ও স্বাস্থ্যখাতে ব্যাপক বিনিয়োগ করছে। এসবেরই ধারাবাহিকতায় উন্নত বাংলাদেশ গঠনের কাজ শুরু করেছি।
পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, এসএমইখাতের বিকাশে আরও উদ্যোগী হতে হবে। জাতীয় অর্থনীতিতে এ খাতের অবদান আরও বেশি প্রয়োজন। যথাযথ পৃষ্ঠপোষকতার মাধ্যমে নতুন নতুন উদ্যোক্তা তৈরি করতে হবে। এসএমই খাতের বিকাশে প্রতিবন্ধকতাসমূহ সর্বাগ্রে চিহ্নিত করতে হবে।
তিনি ভিয়েতনাম, থাইল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া এবং ভারতসহ কয়েকটি দেশের জাতীয় প্রবৃদ্ধিতে এসএমই খাতের অবদানের পরিসংখ্যান তুলে ধরে বলেন, এসএমই ফাউন্ডেশনে একটি স্বাধীন গবেষণা কেন্দ্র থাকা প্রয়োজন। কাউকে বাদ রেখে টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়ন সম্ভব নয়। অর্থনীতির মূলধারায় এসএমই খাতকে সম্পৃক্ত করতে হবে। সরকার এ খাতের উন্নয়নে সম্ভাব্য সব কিছু করতে বদ্ধপরিকর।