ফায়ার সার্ভিস সবার কাছে আস্থা ও গ্রহণযোগ্যতা সৃষ্টি করেছে-পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯, ১:৫৮ পূর্বাহ্ণ

বাঘা প্রতিনিধি


ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ফলক প্রতিস্থাপন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম-সোনার দেশ

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এমপি বলেছেন, ফায়ার সার্ভিস সবার কাছে আস্থা ও গ্রহণযোগ্যতা সৃষ্টি করেছে। মানুষের জানমাল রক্ষা করা হলো ফায়ার সার্ভিসের প্রধান কাজ। অগ্নিকাণ্ড, দুর্ঘটনা, নৌকা ডুবিসহ বিভিন্ন দুর্যোগ মোকাবেলায় ফায়ার সার্ভিস কাজ করে ইতোমধ্যেই প্রশংসিত হয়েছে। ফায়ার সার্ভিস দক্ষতার সঙ্গে সেবা পৌঁছে দিচ্ছে। আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে বহুতল ভবনের যে কোনো দুর্যোগ মোকাবেলায় সক্ষম হচ্ছে ফায়ার সার্ভিস। ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এখন বহুমাত্রিক সেবাকাজে নিয়োজিত।
গতকাল শনিবার বেলা ১১টায় এক কোটি ৬৫ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত রাজশাহীর বাঘা উপজেলার বাঘা-আড়ানী সড়কের তেঁথুলিয়ায় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ফলক প্রতিস্থাপন কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, রাজশাহীর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সহকারী পরিচালক নূরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন, বাঘা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আ’লীগের যুগ্ম সম্পাদক অ্যাড. লায়েব উদ্দিন লাভলু, বাঘা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহিন রেজা, রাজশাহী গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মাসুদ রানা, সহকারি পরিচালক আবদুর রশিদ।
এসময় ওয়ার হাউজ ইন্সপেক্টর ফারুক হোসেনের পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, বাউসা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শফিকুর রহমান শফিক, ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ সাইফুল ইসলাম টগর, সাধারণ সম্পাদক জাহিদ হোসেন প্রমুখ।
অপরদিকে বাঘা সদরে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে ভবনের উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ১৯৭১-এ বঙ্গবন্ধুর ডাকে দেশকে হানাদার মুক্ত করতে সবাই যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েনি। যারা দেশের জন্য যুদ্ধ করেছেন তাদের জন্য মাসিক ভাতা বৃদ্ধি এবং সন্তানদের জন্য চাকরির কোটাসহ মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স বানিয়ে সম্মানিত করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই কমপ্লেক্স হবে ইতিহাস সংরক্ষণ এবং তরুণ প্রজন্মের জন্য স্বাধীনতা চর্চার স্থান।
তিনি আরো বলেন, আ’লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর সারা দেশের ৪৯২টি উপজেলার মধ্যে ২০০টিতে প্রায় দুই কোটি টাকা করে ব্যয়ে ৩ তলা বিশিষ্ট একটি করে অত্যাধুনিক মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সকল উপজেলায় এ কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ করা হবে।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাড. লায়েব উদ্দিন লাভলু, মুক্তিযোদ্ধা আাবদুল খালেক, মুক্তিযোদ্ধা জনাব আলী। উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল, সাবেক চেয়ারম্যান শফিউর রহমান শফিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ