বগুড়ার শাজাহানপুরে মাদ্রাসা ছাত্রীর লাশ উদ্ধার

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৭, ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ

বগুড়া প্রতিনিধি


বগুড়ার শাজাহানপুরে আয়েশা সিদ্দিকা আশা (১১) নামে ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে পড়–য়া এক মাদ্রাসা ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার নিশ্চিন্তপুর গ্রামে একটি ধান খেত থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত আশা নিশ্চিন্তপুর গ্রামের অটোটেম্পু চালক রাশেল মিয়ার মেয়ে। সে নিশ্চিন্তপুর দাখিল মাদ্রাসার ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী।
নিহতের স্বজনরা জানান, প্রতিদিনের মতো গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে আশা তার দাদীর ঘরে ৮ বছর বয়সী ছোট বোন রুবাইয়াকে সঙ্গে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। একই ঘরে আলাদা বিছানায় দাদী ও ফুফাতো বোন সুফিয়া বেগম (২৫) এবং পাশের ঘরে আশার বাবা-মা ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত পৌনে ৩টার দিকে ঘুম ভেঙে গেলে ঘরের দরজা খোলা ও আশাকে দেখতে না পেয়ে দাদী ও ফুফাতো বোনের হৈচৈ শুনে বাবা-মা সহ সবাই খোঁজাখুঁজি শুরু করে। একপর্যায়ে বাড়ির উঠানে রক্তের দাগ দেখতে পাওয়া যায়। সকালে বাড়ির পাশে ধান খেতের আইলের উপর আশার লাশ পাওয়া যায়। পরনের কাপড় দিয়ে লাশের দুই পা বাঁধা এবং গলায় ফাঁস লাগানো ছিল।
এ বিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি, তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমরা গিয়ে মেয়েটিকে বিবস্ত্র অবস্থায় পেয়েছি। তবে পরনের কাপড় দিয়ে দুই পা এবং গলায় ফাঁস লাগানো ছিল বলে মেয়েটির স্বজনেরা জানিয়েছেন। হত্যার কারণ জানা যায় নি। প্রাথমিকভাবে মেয়েটিকে ধর্ষণেরও আলামত পাওয়া যায় নি। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন ছাড়া কোন কিছু বলা যাচ্ছে না।