বগুড়ায় এক সন্ত্রাসীর পা কেটে নিয়েছে প্রতিপক্ষ

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৯, ১:২৯ পূর্বাহ্ণ

বগুড়া প্রতিনিধি


এলাকায় মাদকের নিয়ন্ত্রণের জের ধরে বগুড়ায় এক সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যাবসায়ীর পা কেটে নিয়েছে প্রতিপক্ষ। গত বৃহস্পতিবার রাত ১১ টার দিকে শহরতলীর সাবগ্রাম চান্দুপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে এ ঘটনা ঘটে। আহত হাবিল (৪৫) চান্দুপাড়া গ্রামের আবদুস সামাদের ছেলে। সে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। আহত হাবিলের বিরুদ্ধে বগুড়া সদর থানায় ৮টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে ৪ টি মাদকের এবং ৪ টি মারপিটের মামলা।
থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, হাবিল ওই এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী, ছিনতাইকারী ও সন্ত্রাসী। এসব নিয়ে প্রতিপক্ষ গ্রুপের সঙ্গে তার বিরোধ রয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে হাবিল ও তার সহযোগীরা চান্দুপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন বাঁশ ঝাড়ে মাদক সেবন করছিল। এ সময় প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা তাদের উপর হামলা চালায়। এ সময় হাবিলের সহযোগীরা পালিয়ে গেলেও প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীরা হাবিলকে রাম দা দিয়ে কুপিয়ে আহত করে, তার ডান পা হাঁটুর নিচ থেকে কেটে ফেলে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করেন।
বগুড়া সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এসএম বদিউজ্জামান জানান, হাবিল চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী। প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা তার পা কেটে নিয়েছে বলে জানা গেছে। এঘটনায় এখনো কোন মামলা হয়নি। সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারে পুলিশ মাঠে নেমেছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ