বগুড়ায় যমুনায় নৌকা ডুবে নিখোঁজ আরো দুজনের লাশ উদ্ধার

আপডেট: আগস্ট ১৬, ২০১৯, ১:২৪ পূর্বাহ্ণ

বগুড়া প্রতিনিধি


বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলার যমুনা নদীতে গত মঙ্গলবার নৌকা ডুবে নিখোঁজ আরো দুজনের লাশ গতকাল বৃহস্পতিবার উদ্ধার হয়েছে। তারা হলো সারিয়াকান্দি উপজেলার মানিকদাইড় গ্রামের রেজউল ইসলামের স্ত্রী কাজলী বেগম (২৫) ও অজ্ঞাত পুরুষ (৩৫)। এ নিয়ে ওই ঘটনায় ৪জনের লাশ উদ্ধার হলো। এখনও তিনজন নিখোঁজ রয়েছে।
স্থানীয়রা জানান, উপজেলার কুতুবপুর নামক স্থানে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় দুটি লাশ যমুনার পানিতে ভাসতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়া হয়। পুলিশ গিয়ে লোকজনের সহায়তায় লাশ দুটি উদ্ধার করে পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে নেয়। এরপর কাজলী বেগমের লাশ তার পরিবার গ্রহণ করে। তবে বিকেল ৬টা পর্যন্ত অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ কুতুবপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে ছিল।
এ ব্যাপারে সারিয়াকান্দি উপজেলার কুতুবপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এসআই দূরুল হুদা জানান, কাজলী বেগমের লাশ পরিবারের কাছ হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে অপরজনের লাশ এখনও সনাক্ত হয়নি।
উল্লেখ্য গত মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বগুড়া জেলার সারিয়াকান্দি উপজেলার যমুনা নদীর পাকুরিয়ার চর এবং বাটিয়ার চরের মাঝামাঝি এলাকায় শতাধিক যাত্রী বোঝাই নৌকা ডুবে দুজন নিহত ও অপর পাঁচজন নিখোঁজ হন। নৌকাটি যমুনা চরের চালুয়াবাড়ি ইউনিয়নের মানিকদাইড় চর থেকে সারিয়াকান্দি উপজেলা সদরের যমুনার কালিতলা ঘাটে যাচ্ছিল। পরে ফায়ার সার্বিসের একটি ডুবুরিদল অভিযান চালিয়েও সন্ধান না পেয়ে অভিযান শেষ করে চলে যায়। এঘটনায় যারা নিখোঁজ ছিলেন তারা হলেন জামালপুর জেলার মাদারগঞ্জ উপজেলার পাকরল গ্রামের জওহর আলী ও তার ৭ বছরের কন্যা সুরমা, একই উপজেলার চর পাকেরদহ গ্রামের জাহেদুল, তার ২ মাস বয়সী শিশু এবং বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলার মানিকদাইড় গ্রামের রেজউল ইসলামের স্ত্রী কাজলী বেগম।