বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের সর্বক্ষেত্রে উন্নয়ন করছে: সিটি মেয়র

আপডেট: অক্টোবর ১৯, ২০১৯, ১:৪৫ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


শেখ রাসেলের জন্মদিনে শিশুদের নিয়ে কেক কাটছেন সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ও বিশিষ্ট সমাজসেবী শাহীন আক্তার রেণী-সোনার দেশ

সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদরের সন্তান ও শেখ হাসিনার আদরের ভাই ছিল শিশু রাসেল। ঘাতকেরা বঙ্গবন্ধুর শিশুপুত্র রাসেলকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে। তারা বঙ্গবন্ধুর বংশের কাউকেই বাঁচিয়ে রাখতে চায় নি। কারণ তাদের মধ্যে ভয় ছিল, তারা মনে করতো, যদি বঙ্গবন্ধু পরিবারের কেউ একজন বেঁচে থাকে তবে আবারো এদেশে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়ন করবে। সত্যিই সৃষ্টিকর্তার কী অসীম করুণা, বিদেশে থাকায় সেদিন বঙ্গবন্ধুর দুইকন্যা বেঁচে যায়। এখন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা দেশের প্রধানমন্ত্রী। তিনি সর্বক্ষেত্রে দেশের উন্নয়ন করছেন। এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে আমরা কাজ করছি। বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের খুনিদের অনেকের শাস্তি হয়েছে, আর যারা পলাতক আছে, তাদের দেশে ফিরিতে আনতে চেষ্টা করছে সরকার।
গতকাল শুক্রবার রাজশাহীতে শেখ রাসেল’র ৫৬তম জন্মদিন উদযাপন অনুষ্ঠানে সিটি মেয়র এ কথা বলেন। সমাজসেবা অধিদপ্তর’র আয়োজনে শেখ রাসেল প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে নানা আনুষ্ঠানিকতায়
জন্মদিন উদযাপন করা হয়।
রাজশাহীর পবা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহাদাত হেসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, বিশেষ অতিথি ছিলেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনী, সমাজসেবা অধিদফতর রাজশাহী বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক একেএম সারোয়ার জাহান, ১৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনার, ১৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর বেলাল আহম্মেদ, ১৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমনসহ অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ।
জন্মদিন উপলক্ষে কেক কাটা, আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণ ও মনোজ্ঞ সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এরপর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, শিশুপুত্র শেখ রাসেলসহ বঙ্গবন্ধু পরিবারের সকল শহিদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।
রাজশাহী জেলা প্রশাসন : শিশুদের নাচ ও গানের মধ্যে দিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেল এর ৫৫তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার রাজশাহী জেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ শিশু একাডেমির উদ্যোগে সংস্কৃতির নানা আয়োজনে রাজশাহীর বাংলাদেশ শিশু একাডেমিতে জন্মদিন পালন করা হয়।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শরিফুল হক’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক হামিদুল হক, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ শিশু একাডেমির জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা মন্জুর কাদের। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রচিত ‘আমাদের ছোট রাসেল সোনা’ বই থেকে পাঠ করে রঙ্গন এবং শেখ রাসেলকে নিয়ে গল্প করেন সাবেক জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা সুখেন কুমার মাখার্জী। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মরিওম মঞ্জুরী নিশি।
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় : বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৫৫তম জন্মদিবস উপলক্ষে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শেখ রাসেলের জন্মদিন উদযাপন করা হয়েছে। দিবসটি উপলেক্ষে গতকাল শুক্রবার সকাল ৮টায় এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। পরে শেখ রাসেল মডেল স্কুলে শোভাযাত্রা, আলোচনা ও কেক কাটার মধ্য দিয়ে দিনটি উদযাপন করা হয়।
পরে সকাল ৯টায় স্কুল প্রাঙ্গণে শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ ও জন্মদিনের কেক কাটেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি রাবি উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়া, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক এ কে এম মোস্তাফিজুর রহমান আল-আরিফ এবং স্কুল পরিচালনা পরিষদের সভাপতি শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক মো. আবুল হাসান চৌধুরী।
দিবসটি উপলক্ষে আয়োজিত কর্মসূচির মধ্যে আরো ছিল চিত্রাঙ্কন ও রচনা প্রতিযোগিতার পুরস্কার প্রদান। উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের পুরস্কার প্রদান করেন। এছাড়া স্কুলের শিক্ষক দেবশ্রী মণ্ডলের রচনা ও নির্দেশনায় শিক্ষার্থীরা ‘স্বাধীনতা আমার আধকার’ শীর্ষক নাটিকা পরিবেশন করেন।
স্কুলের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ লিসাইয়া মেহ্জবীনের সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে ছাত্র-উপদেষ্টা অধ্যাপক লায়লা আরজুমান বানু, জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রভাষ কুমার কর্মকার, প্রক্টর অধ্যাপক মো. লুৎফর রহমানসহ স্কুলের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকগণ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন স্কুলের শিক্ষক রুম্মান বেগম ও শারমিন সুলতানা।
এছাড়া জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠপুত্র শেখ রাসেল এর ৫৫তম জন্মদিন পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টায় সিটি বাইপাস মোড়ে ত্যাগী নেতাদের ক্লাবে কেক কেটে পালন করা হয়।
অনুষ্ঠানের উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সহ-সম্পাদক আসরাফ হোসেন (নবাব) সাবেক মহানগর আইন বিষয়ক সম্পাদক মেরাজ উদ্দিন, মোহাম্মদ আলী, হারুন আর রশিদ (হারুন) সালাউদ্দিন (সাহিন), টিটু, আওয়াল আহম্মেদ, বাবু, সাজ্জাদ রহমান প্রমুখ। পরে শেখ রাসেলসহ বঙ্গবন্ধু পরিবারের সব শহিদদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।
আইনকন প্লাস:
শেখ রাসেল’র ৫৬তম জন্মদিন উদযাপন উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী ওলামা কলাণ পরিষদের সভাপতি মাহমুদ ইবনে জামাল, নগর আওয়ামী লীগ নেতা ফিরোজ কবীর সেন্টু, ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবদুল মোমিন, নগর যুবলীগের দফতর সম্পাদক ইতু হাসান, কেন্দ্রীয় রেলওয়ে শ্রমিক লীগের যুগ্ম সম্পাদক আকতার হোসেন, নগর কৃষক লীগের সহ-সভাপতি এএইচএম আশিকুজ্জামান শাওন, বিভাগীয় সমাজসেবা অধিদফতরের সহকারী পরিচালক ড. ফিরোজ আবদুল্লাহ, আইনকন প্লাস কোচিং সেন্টারের পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার নাসিম আঞ্জুম মীরশাদ। এসময় নগর ও ওয়ার্ড ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ