বঙ্গবন্ধু বিমানবন্দর নির্মাণে আগ্রহী জার্মান কোম্পানি

আপডেট: নভেম্বর ১৪, ২০১৭, ১২:৩৭ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নির্মাণে বাংলাদেশের অংশীদার হতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে জার্মানির এভিয়েশন প্রতিষ্ঠান এভি এলায়েন্স।
আন্তর্জাতিক খ্যতি সম্পন্ন এ প্রতিষ্ঠানের জেদ্দা,এথেন্স, হামবুর্গ, সিডনি, তিরানা ও বুদাপেস্টসহ আরও কয়েকটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নির্মাণের অভিজ্ঞতা রয়েছে।
গতকাল সোমবার দুপুরে বেসামরিক বিমান ও পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রীর সভাপতিত্বে সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে এ আগ্রহের কথা জানানো হয়।
পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশিপের ভিত্তিতে বিমানবন্দরের অর্থায়ন, ডিজাইন, নির্মাণ, পরিচালন ও মেইনটেইন্সে আগ্রহী প্রতিষ্ঠানটি। বিমানবন্দর নির্মাণে চারশ’কোটি ডলার বিনিয়োগ করতে চেয়েছে তারা। বিওটি ভিত্তিতে প্রথমে ২৫ ও পরে ২০ বছরের জন্য চুক্তি হবে।
সভায় মন্ত্রী বলেন, প্রাচ্য ও পাশ্চাত্যের এভিয়েশন হাব হিসেবে বাংলাদেশকে গড়ে তুলতে সরকার এ বিমানবন্দর নির্মাণ করতে যাচ্ছে। এ বন্দর ১০ হাজার নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টির পাশাপাশি, দেশের বাণিজ্য বিনিয়োগ ও পর্যটন খাতে বিশাল অবদান রাখবে।
উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নির্মাণে জাপানি প্রতিষ্ঠান নিপ্পন কোই লি. সমীক্ষা যাচাই শেষে মাদারীপুরের শিবচরের চর নাজাতে, মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানে ও ঢাকার দোহারের চর বিলাশপুরকে প্রাথমিক ভাবে নির্বাচিত করেছে।
সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন বিমান ও পর্যটন সচিব এসএম গোলাম ফারুক, সিভিল এভিয়েশনের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম নাইম হাসান, এভিএলায়েন্সের বুদাপেস্ট বিমান বন্দরের প্রকল্প পরিচালক জোহানা মেরটেন, এভিএলায়েন্সের পরিচালক আনসগার ফিশার প্রমুখ।
সোমবার বিকেলে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান তুহিনের পাঠানো এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
তথ্যসূত: বাংলানিউজ