বাগমারায় বিষ প্রয়োগে ৬ একর জমির ধান পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

আপডেট: এপ্রিল ৯, ২০১৯, ১২:৪৯ পূর্বাহ্ণ

বাগমারা প্রতিনিধি


রাজশাহীর বাগমারায় প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে ঘাসমারা কীটনাশক স্প্রে করে ভূমিহীনদের ৬ একর জমির বোরো ধান পুড়িয়ে দিয়েছে দৃর্বৃত্তরা। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বড়বিহানালী ইউনিয়নের বিলসতি বিলে। ওই ঘটনায় ভূমিহীন কৃষকেরা বাদি হয়ে উপজেলা কৃষি অফিস ও বাগমারা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। ঘটনার পর থেকেই ভূমিহীন ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
জানা যায়, উপজেলার বড়বিহানালী গ্রামের আবদুস সাত্তার অবৈধভাবে বড়বিহানালী বিলসতি বিলে প্রায় ৬ একর সরকারি খাস সম্পত্তি ভোগ দখল করে আসছিলেন। গত বছরের নভেম্বর মাসে এলাকার লোকজন সংঘবদ্ধ হয়ে আবদুস সাত্তারের কাছ থেকে সরকারি খাস জমিগুলো উদ্ধার করেন এবং একই এলাকার ১৮ জন ভূমিহীনদের মধ্যে ভাগবাটোয়ারা করে দেয়া হয়। এবং তারা সেখানে বোরো ধানের চাষ করেন। জমির ধান পাকা শুরু করলে গত বৃহস্পতিবার রাতের কোনো এক সময়ে ঘাসমারা বিষ প্রয়োগ করেন দুর্বৃত্তরা। বিষ প্রয়োগের পর থেকেই আধা পাকা ধান আস্তে আস্তে মরতে শুরু করে। জমির ধান পুড়ে যেতে দেখে এলাকার ভূমিহীন কৃষকেরা বিষয়টি উপজেলা কৃষি অফিসকে অবহিত করেন। কৃষি অফিসের লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে তারা বিষয়টি বুঝতে পারেন এবং বিষয়টি উপজেলা কৃষি অফিসারকে অবহিত করেন। উপজেলা কৃষি অফিসার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান এবং ধান খেতে বিষ প্রয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। ভূমিহীন কৃষকদের মধ্যে মোস্তাফিজুর রহমান, আবদুর রহমান, আবদুর রাজ্জাক, আবদুর রশীদ, সাইদুর রহমান ও বাবু মন্ডল অভিযোগ করে বলেন, আবদুস সাত্তার আমাদের ধান খেতে বিষ প্রয়োগ করে ধান পুড়িয়ে দিয়েছে। তারা আবদুস সাত্তার ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের প্রতি আহবান জানান।
এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ রাজিবুর রহমান জানান, বিষ প্রয়োগের মাধ্যমেই ভূমিহীন কৃষকদের জমির ধানগুলো পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। কি পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, দুই চারদিন পর ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণ করা যাবে।
যোগাযোগ করা হলে বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাছিম আহম্মেদ বলেন, লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ