বাগাতিপাড়ায় খেজুরের লোভ দেখিয়ে শিশুকে ধর্ষণ !

আপডেট: জুলাই ১২, ২০১৮, ১২:১৪ পূর্বাহ্ণ

বাগাতিপাড়া প্রতিনিধি


নাটোরের বাগাতিপাড়ায় খেজুর খেতে দেয়ার লোভ দেখিয়ে এক বখাটে কিশোরের বিরুদ্ধে পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় গতকাল বুধবার ধর্ষণের শিকার শিশুটির মা বাদি হয়ে বাগাতিপাড়া মডেল থানায় মামলা করেছেন। মামলা ও শিশুটির পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত রোববার বিকেলে বাড়ির পাশে অন্য শিশুদের সাথে খেলাধূলা করছিল নির্যাতনের শিকার শিশুটি। সে সময় উপজেলার গালিমপুর গ্রামের হক সাহেবের ছেলে আরিফুল ইসলাম (১৫) ওই শিশুটিকে খেজুর খেতে দেয়ার লোভ দেখিয়ে বাড়ির পাশের পাট খেতে নিয়ে যায়। সেখানে আরিফুল শিশুটিকে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে শিশুটির রক্ত ক্ষরণ শুরু হয়। পরে অসুস্থ অবস্থায় কাঁদতে কাঁদতে শিশুটি বাড়ি ফিরলে তার কাছ থেকে পরিবারের লোকজন ঘটনা জানতে পারেন। মান সম্মানের কথা ভেবে প্রথমে নির্যাতিত শিশুটির পরিবার বিষয়টি কাউকে জানায় নি। পরে ওই শিশুটির অবস্থার অবনতি হলে স্থানীয় বাগাতিপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য শিশুটিকে নাটোর সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়অর পরমর্শ দেন। নাটোর সদর হাসপাতালে তিন দিন চিকিৎসার পর গত মঙ্গলবার বিকেলে শিশুটি বাড়ি ফিরে। এ ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত আরিফুল ও তার পরিবারের লোকজন বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে।
এ ব্যাপারে বাগাতিপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক আবদুুল্লাহ মোহাম্মদ বলেন, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে শিশুটি ওইদিন ভর্তি হলে পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে জেলা সদরের হাসপাতালে স্থানান্তর করার পরামর্শ দেয় হয়।
এ ব্যাপারে বাগাতিপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবদুুল্লাহ আল মামুন বলেন, শিশু ধর্ষণের মামলা হয়েছে। আসামি পলাতক রয়েছে তবে তাকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।