বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

বিনা প্রস্তুতিতেই অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে ফেদেরারের এমন শুরু!

আপডেট: January 21, 2020, 1:03 am

সোনার দেশ ডেস্ক


অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ঠিক আগে সবাই যখন প্রস্তুতি নিয়ে ব্যস্ত, রজার ফেদেরার সময় কাটিয়েছেন পরিবারের সঙ্গে। কোর্টে র‌্যাকেট নিয়ে লড়াইয়ের চেয়ে প্রিয়জনদের সঙ্গে সময় কাটানোকে গুরুত্ব দিয়েছেন টেনিসের সফলতম খেলোয়াড়।
নভেম্বরে এটিপি ফাইনালসে স্তেফানোস সিসিপাসের কাছে হেরে যাওয়ার পর আজই প্রথম নামলেন প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে। আর নেমেই দুর্দান্ত পারফরম্যান্স। অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে স্টিভ জনসনকে ফেদেরার উড়িয়ে দিয়েছেন ৬-৩, ৬-২, ৬-২ গেমে। প্রথম রাউন্ডে সুইস কিংবদন্তির সঙ্গে মার্কিন অবাছাইয়ের লড়াইটা শেষ মাত্র ৮১ মিনিটে।
নোভাক জোকোভিচ অবশ্য এত সহজে জিততে পারেননি। সোয়া দুই ঘণ্টা লড়াই করে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ৭-৬ (৭/৫), ৬-২, ২-৬, ৬-১ গেমে হারিয়েছেন জার্মানির ইয়ান-লেনার্ড স্ট্রুফকে। ম্যাচশেষে ক্যারিয়ারের ৯০০তম জয়ের জন্য অভিনন্দন পেতেই স্বভাবসুলভ রসিকতার ঢংয়ে রেকর্ড ৭ বারের চ্যাম্পিয়নের মন্তব্য, ‘মাত্র শুরু করলাম। মনে হয় শুরুটা ভালোই হয়েছে। আমার প্রতিপক্ষ দারুণ লড়াই করেছে। সে দারুণ শক্তিশালী খেলোয়াড়।’
মেলবোর্ন পার্কে জোকোভিচের চেয়ে একটি কম ট্রফি ফেদেরারের। গতকাল ১০টি এইস আর ৩০টি উইনার্স মেরে প্রতিপক্ষকে উড়িয়ে দিলেও সতর্ক রেকর্ড ২০টি গ্র্যান্ড স্লামজয়ী, ‘আমাকে অনেক সতর্ক হয়ে খেলতে হবে। প্রতি রাউন্ড, এমনকি প্রতিটি পয়েন্ট জয়ের মানসিকতা নিয়ে নামতে হবে কোর্টে।’
বছরের প্রথম গ্র্যান্ড স্লামের প্রথম দিনে তেমন অঘটন ঘটেনি। মেয়েদের এক নম্বর অ্যাশলি বার্টি প্রথম সেট হারলেও পরের দুটি জিতে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠেছেন। জিতেছেন পুরুষ এককের ষষ্ঠ বাছাই সিসিপাস আর অষ্টাদশ বাছাই গ্রিগর দিমিত্রভও। অবশ্য হেরে গেছেন বাছাইয়ে ১৩ নম্বর দেনিস শাপালভ।