বিশ্বকাপের মাঝে মাশরাফির বিশ্রামের কথাও উঠেছিল!

আপডেট: July 12, 2019, 1:03 am

সোনার দেশ ডেস্ক


অধিনায়কত্ব নিয়ে প্রশ্ন না উঠলেও বিশ্বকাপে পারফরম্যান্সের কারণে সমালোচিত হয়েছেন মাশরাফি মুর্তজা। জানা গেলো, হালকা চোট নিয়ে খেলেছেন বাংলাদেশের ক্যাপ্টেন। টুর্নামেন্টের শেষ দিকে তাকে বিশ্রাম দেওয়ার চিন্তাও করেছিল টিম ম্যানেজমেন্ট। কিন্তু সবসময় লড়াকু মনোভাব নিয়ে এগিয়ে যাওয়া মাশরাফি খেলেছেন দল ও দেশের জন্য।
আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে চোট পেয়ে বিশ্বকাপ খেলতে ইংল্যান্ডে যান মাশরাফি। এর প্রভাব পড়েছে তার পারফরম্যান্সে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রেসিডেন্টন নাজমুল হাসান জানালেন, এই অবস্থায় মাশরাফিকে বিশ্রাম দেওয়ার কথা ভেবেছিল টিম ম্যানেজমেন্ট। এমন কি অধিনায়ক নিজেও এটা ভেবেছিলেন।
বুধবার লন্ডনে চিসউইক ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ইন্টার পার্লামেন্টারি ক্রিকেট দেখতে এসে বোর্ড প্রধান বলেছেন, “সে লড়াকু একজন খেলোয়াড়। তবে দুই একবার কথা হয়েছিল যে সে বিশ্রাম নেবে। সে নিজেও ঠিক করেছিল। তারপরে তার মনে হয়েছে, ‘আমি সারাজীবন দেশের জন্য লড়াই করলাম, এখন শেষ দুই ম্যাচে বসে পড়বো? আমি তো ইনজুরি নিয়েই খেলি।’ আসলে এই মানসিকতা সব ক্রিকেটারের থাকা দরকার।”
ইংল্যান্ডে যে মাশরাফি তার সেরাটা দিতে পারবে না বোর্ড আগেই জানতো বললেন নাজমুল হাসান, ‘বিশ্বকাপে সে ভালো করতে পারেনি। আমরা কিন্তু আগেই জানতাম, তার ভালো করার কথা নয়। এই কন্ডিশনে, পিচে সে ভালো করবে এটা আমরা আশাও করিনি। সে চোট পেয়েছে। আয়ারল্যান্ডে ফাইনাল ম্যাচ থেকে সে গ্রেড টু টিয়ার নিয়ে খেলছে।’
পারফরম্যান্স বিচারে মাশরাফিকে মূল্যায়ন না করলেও অধিনায়ক হিসেবে তাকে অন্য উচ্চতায় রাখেন বোর্ড প্রধান। সাকিব ও মাশরাফির মতো বিকল্প পাওয়া কঠিন হবে স্বীকার করলেন নাজমুল, ‘মাশরাফি খেলোয়াড় (কেবল) হিসেবে তো আসে না। কিন্তু যদি অধিনায়ক বলেন, তাহলে ওর মতো অধিনায়ক আমরা কোথাও পাবো না। আমি সব সময় বলি দুইজনের (ক্রিকেটার) বিকল্প আমাদের নাই- খেলোয়াড় হিসেবে সাকিব আর অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফি। এই দুইজন ছাড়া সবারই বিকল্প আছে।’