বিশ্ব অ্যান্টিবায়োটিক সচেতনতা সপ্তাহে র‌্যালি

আপডেট: নভেম্বর ১৫, ২০১৭, ১:৪২ পূর্বাহ্ণ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি


বিশ^ অ্যান্টিবায়োটিক সচেতনতা সপ্তাহে নগরীতে র্যা লি সোনার দেশ

বিশ্ব অ্যান্টিবায়োটিক সচেতনতা সপ্তাহ উপলক্ষে ফার্মেসি বিভাগের উদ্যোগে গতকাল মঙ্গলবার সকালে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের তালাইমারি ক্যাম্পাস থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি তালাইমারি মোড় ঘুরে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজলা ক্যাম্পাসের প্রশাসনিক ভবনে গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালিটির মূখ্য উদ্দেশ্যই ছিল অ্যান্টিবায়োটিক সম্পর্কে সকলকে সচেতন করে তোলা। অ্যান্টিবায়োটিক রেসিস্ট্যান্স বর্তমান বিশ্বে একটি গুরুত্বপূর্ণ ও ক্রমবর্ধমান বৈশ্বিক সমস্যা। বর্তমানে বিশ্বে প্রায় ৭০ লাখ মানুষ অ্যান্টিবায়োটিক রেসিস্ট্যান্স ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে, প্রতিবছর প্রায় ৭ লাখ লোক অ্যান্টিবায়োটিক রেসিস্টেন্সের জন্য মারা যাচ্ছে এবং বাংলাদেশের মত উন্নয়নশীল দেশে এর প্রভাব আরো প্রকট। কারণ অ্যান্টিবায়োটিকের অযৌক্তিক ও যথেচ্ছ ব্যবহার যেমন, প্রেসক্রিপশন ব্যতিত অ্যান্টিবায়োটিকের ব্যবহার, সঠিকভাবে রোগ নির্ণয় না করা, অ্যান্টিবায়োটিকের কোর্স সম্পন্ন না করা, একাধিক অ্যান্টিবায়োটিক একত্রে প্রয়োগ করা, এমনকি সাধারণ সর্দি-কাশিতেও ডাক্তারদের দ্বিধাহীনভাবে অ্যান্টিবায়োটিক প্রেসক্রাইব করার প্রবণতা। এছাড়াও বাংলাদেশের ওষুধ কোম্পানিগুলোর অতিবাণিজ্যিক মনোভাব ডাক্তারদের অতিরিক্ত অ্যান্টিবায়োটিক প্রেসক্রাইব করতে বাধ্য করছে। এমতাবস্থায় অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহারের লাগাম টেনে না ধরলে অতীতের মতো ছোটখাটো রোগ কলেরা, ডায়রিয়া বা টাইফয়েড মহামারি আকার ধারণ করবে। একারণে ডঐঙ (ডড়ৎষফ ঐবধষঃয ঙৎমধহরুধঃরড়হ) কর্তৃক বিশ্বব্যাপি প্রতিবছর অ্যান্টিবায়োটিক সচেতনতা সপ্তাহ পালিত হয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় প্রতিবছরের ন্যায় এবারও বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগ এই সপ্তাহ উপলক্ষে জনসচেতনতামূলক র‌্যালি, মানববন্ধন ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘বিশ্ব অ্যান্টিবায়োটিক সচেতনতা সপ্তাহ উপলক্ষে অনুষ্ঠিত র‌্যালিতে উপস্থিত ছিলেন, বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপদেষ্টা ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. এম. সাইদুর রহমান খান, বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. নূরুল হোসেন চৌধুরী এবং ফার্মেসি বিভাগের কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ড. মীর ইমাম ইবনে ওয়াহেদসহ শিক্ষকসহ শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ। উক্ত কর্মসূচিতে বক্তব্য প্রদান করেন, বিভাগের সম্মানিত কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ড. মীর ইমাম ইবনে ওয়াহেদ। উপস্থিত সকলের দাবি শুধুমাত্র নিবন্ধনকৃত ডাক্তারদের প্রেসক্রিপশন ও ফার্মাসিস্টদের তত্ত্বাবধানে অ্যান্টিবায়োটিকের যৌক্তিক ব্যবহার নিশ্চিত করা।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ