বড়াইগ্রামে কাজী ও কনের বাবা-মায়ের জরিমানা

আপডেট: জুন ১১, ২০১৯, ১২:২১ পূর্বাহ্ণ

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি


নাটোরের বড়াইগ্রামে বাল্যবিয়ের অপরাধে কাজী ও কনের বাবা-মাকে ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল সোমবার সন্ধায় উপজেলার রহমতপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ইউএনও আনোয়ার পারভেজ ওই আদালত পরিচালনা করেন।
বড়াইগ্রাম থানার উপ-পরিদর্শক লিটন সাহা জানান, রহমপুর গ্রামের জনৈক ব্যক্তি তার নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া নাবালিকা মেয়েকে (১৫) জনৈক ছেলের সঙ্গে গোপনে বিয়ে দিয়ে দেয়। গতকাল সোমবার বিকেলে কনের বাড়ি থেকে বর এসে নিয়ে যাবে এমন খবর পেয়ে ইউএনও আনোয়ার পারভেজ ওই বাড়িতে পুলিশসহ অভিযান চালান। এসময় বিয়েতে আমন্ত্রীতরা পালিয়ে গেলেও কনের বাবা, মা এবং বিয়ে পড়ানো কাজী শ্রীরামপুর গ্রামের মৃত জান মোহাম্মদের ছেলে ও দিঘলকান্দি মাদরাসার শিক্ষক আবু সাঈদকে (৪৮) ধরে ফেলেন। পরে সন্ধায় সেখানে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে কাজী ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত থাকায় জেল না দিয়ে সকলকে একত্রে ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এসময় কাজী আবু সাঈদ ভবিষ্যতে আর এমন ধরণের বাল্যবিয়ে না পড়ানো অঙ্গীকার করে মুক্ত হন।
ইউএনও আনোয়ার পারভেজ বলেন, বাল্যবিয়ের বিরুদ্ধে আমাদের কোন ছাড় নাই। গোপনে আগে পরে কেউ বিয়ে দিয়ে ফেললেও তাদেরকে আইনের আওতায় এনে শাস্তি দেয়া হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ