ভারতে নারী পাইলটের হার বিশ্বের দ্বিগুণ

আপডেট: নভেম্বর ৯, ২০১৮, ১২:২৬ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


পাইলটের পেশায় বিশ্বে ভারতীয় নারীদের অংশগ্রহণের হার শতকরা হিসাবে সবচেয়ে বেশি। তবে এখানেই শেষ নয়, ভারতে এ হার বিশ্বে নারী পাইলটের সামষ্টিক হারের তুলনায় দ্বিগুণেরও বেশি। ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি অব ওমেন এয়ারলাইন পাইলটসের (আইএসএ+২১) এক পরিসংখ্যানে এ তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার
পরিসংখ্যানে বলা হচ্ছে, বিশ্বে নারী পাইলটের হার শতকরা ৫.৪। তবে ভারতে নারী পাইলটের হার ১২.৪। ভারতে মোট পাইলটের সংখ্যা ৮ হাজার ৭৯৭ জন। এর মধ্যে নারীদের সংখ্যা ১ হাজার ৯২ জন। অন্যদিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নারী পাইলটের হার ৭.৫।
আইএসএ+২১ বলছে, ১ হাজার ৯২ জন নারী পাইলটের মধ্যে ৪৮৫ জন ক্যাপ্টেন। সারাবিশ্বে পাইলটের সংখ্যা দেড় লাখের বেশি। এর মধ্যে ৮ হাজার ৬১ জন নারী। এসব নারী পাইলটের মধ্যে ২ হাজার ১৯০ জন ক্যাপ্টেন।
২০০৬ সালের ১১ সেপ্টেম্বরের এক পরিসংখ্যানের উদ্ধৃতি দিয়ে টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই বছর বিশ্বে নারী পাইলটের হার ছিল ৫.৯। ভারতে এ হার ছিল ১১ ভাগ, যা ওইসময়ও বিশ্বে নারী পাইলটের হারের দ্বিগুণ।
পরিসংখ্যানের তথ্যানুসারে, বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে নারী পাইলট নিয়োগ দিয়েছে দিল্লিভিত্তিক জুম এয়ার, শতকরা ৩০ জন। অর্থাৎ প্রতি ৩০ জনে ৯ জন নারীকে পাইলট হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ইন্দিগো এয়ারলাইন। প্রতিষ্ঠানটিতে নারী পাইলটের হার ১৩.৯। প্রতিষ্ঠানটির ২ হাজার ৬৮৯ জন পাইলটের মধ্যে নারী পাইলট ৩৫১ জন। এর মধ্যে ১১৮ জন নারী কমান্ডার।
এয়ার ইন্দিগোর মুখপাত্র টাইমস অব ইন্ডিয়াকে জানান, গত পাঁচ বছরে নারী পাইলটের সংখ্যা ৮০ থেকে ৩৩০-এ পৌঁছিয়েছে। আমাদের বেশিরভাগ নারী পাইলট ট্রেইনার এবং কিছু সংখ্যক ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছেন। এ ছাড়া দুইজন নারী পাইলট ফ্লাইট অপারেশন ইন্সপেক্টর হিসেবে মনোনীত হয়েছেন।
টাইমস অব ইন্ডিয়া বলছে, মাতৃত্বকালীন ছুটিতে বিশেষ ধরনের সুযোগ-সুবিধা ভোগ করেন এয়ার ইন্দিগোর নারী পাইলটরা। এ সময় মাসিক বেতন বাদেও তাদের অফিস ডিউটি ভাতা প্রদান করা হয়। এ ছাড়া তাদেরকে ফ্লাইট ডিউটি থেকে বিরত রাখা হয়। তথ্যসূত্র: জাগোনিউজ