ভুল বানানে ঐতিহ্য চত্বর || ফলকটি শুদ্ধ বানানে পুনঃস্থাপন করা হোক

আপডেট: জানুয়ারি ৭, ২০১৮, ১২:২৫ পূর্বাহ্ণ

মাতৃভাষা বলেই যথেচ্ছ ব্যবহার করতে হবে? বাংলা লেখার ক্ষেত্রে এর শুদ্ধ রীতি আছে এটা মেনেই এর চর্চা করা যুক্তিযুক্ত। কিন্তু অনেকেই বাংলা ভাষা ব্যবহারের ক্ষেত্রে এর বানান রীতিকে মোটেই গ্রাহ্য করে না। পরিণতিতে যেখানে সেখানে ভুল বানানে লেখা সাইন বোর্ড, ফলক, ব্যানার, ফেস্টুন প্রদর্শিত হচ্ছে। অথচ একটু সতর্ক হলেই বাংলা ভাষার প্রতি এই অবমাননাকর পরিস্থিতি সহজেই এড়ানো সম্ভব।
বাংলা বানানের ভুল চর্চা যখন দায়িত্বশীল প্রতিষ্ঠান করে তখন সেটা খুবই বেদনাদায়ক ব্যাপার হয়। অনেক সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান তাদের সাইন বোর্ড, ফলক ইত্যাদিতে ভুল বানানের প্রয়োগ করে থাকে। এটা যে শুধু বাংলা ভাষার প্রতি অবমাননা তাই নয়Ñ ওই প্রতিষ্ঠানের জন্যও তা মানহানিকর। রাজশাহী মহানগরীর নাগরিকদের ঘনিষ্ট প্রতিষ্ঠান রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন সেই গর্হিত কাজটিই করেছে। ভুল বানানে ফলক উন্মোচন করে বিতর্কের সৃষ্টি করেছে। এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন দৈনিক সোনার দেশে প্রকাশিত হয়েছে।
প্রতিবেদনের তথ্য অনুয়ায়ী ২০১৮ এর প্রথম দিন নগরীর সিটি বাইপাস এলাকায় স্থাপন করা হয় টমটম ভাস্কর্য। ভাস্কর্যে ব্যবহৃত ফলকে একাধিক ভুল বানানের প্রয়োগ করা হয়েছে। এখানে লেখা রয়েছে ‘ঐতিহ্য চত্ত্বর’। বাংলা একাডেমি অভিধান অনুযায়ী প্রকৃত বানান ‘চত্বর’। ‘সাধারণ’ বানান ভুল রয়েছে। সেটি লেখা হয়েছে ‘সাধারণের’। রয়েছে ‘জানুয়ারি’ বানান ভুল, লেখা হয়েছে ‘জানুয়ারী’। জীবনসঙ্গী এক শব্দ হলেও লেখা হয়েছে ‘জীবন সঙ্গী’। অর্থাৎ আলাদা করা হয়েছে। বানানের এই দুরাবস্থা সকলের দৃষ্টি কেড়েছে। শিক্ষানগরী রাজশাহীতে নব সংযোজন এই ভাস্কর্যে বানানের এই হালকে অনেকেই লজ্জাজনক বলে জানিয়েছেন।
রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মত একটি দায়িত্বশীল প্রতিষ্ঠান এমন অমনোযোগী ও উদাসীন আচরণ করবে কেন? এই প্রতিষ্ঠান রাজশাহী মহানগরী তথা বরেন্দ্র অঞ্চলের সংস্কৃতি, ঐতিহ্য এবং এ অঞ্চলের মানুষের মর্যাদা গৌরবের প্রতিনিধিত্ব করে। ও এ অঞ্চলের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের পূর্ণ সংরক্ষণ এবং এর বিকাশ ও সম্প্রসারণের দায়িত্বও এই প্রতিষ্ঠানটির ওপর বর্তায়। কিন্তু কোনো কাজের দরুন নাগরিক মর্যাদা ক্ষুণœ হয় তা অত্যন্ত বেদনাদায়ক। শিক্ষানগরী খ্যাত রাজশাহীতে ভ্রমণে এসে বাইরের পর্যটকদের কাছে ওই ভুল বানান রাজশাহীর মানুষের শিক্ষা ও রুচিবোধকে প্রশ্নবিদ্ধ করবে নয় কি?
রাজশাহী সিটি কর্রোরেশন বাংলা, ইংরেজি কিংবা অন্য যে কোনো ভাষার কোনো সাইন বোর্ড, ব্যানার, ফলক কিংবা অন্য যা-ই হোক না কেন তা যদি সাধারণের জন্য প্রদর্শনযোগ্য হয় তবে তা শুদ্ধ বানান রীতি মেনেই করতে হবে। এ ক্ষেত্রে পেশাদার কিংবা দক্ষ ব্যক্তিদের পরামর্শও নেয়া যেতে পারে।
ঐতিহ্য চত্বরে যে ফলটি ব্যবহার করা হয়েছে তা শিগগিরই অপসারণ করে শুদ্ধ বানানে নতুন ফলক স্থাপনের উদ্যোগ নেয়ার জন্য রাসিক কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানাই।

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ