মাদক নির্মূলে শিগগিরই শুরু হতে যাচ্ছে ‘টাফ অ্যাকশন’ : পুলিশ কমিশনার

আপডেট: জানুয়ারি ১৪, ২০১৮, ২:১৮ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


স্টুডেন্ট কমিউনিটি পুলিশিংয়ের প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর উদ্বোধন করেন রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মাহাবুবর রহমান। এসময় উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ হবিবুর রহমানসহ অন্যান্যরা-সোনার দেশ

রাজশাহী মহানগর পুলিশের কমিশনার মাহাবুবর রহমান বলেছেন, মাদক নির্মূলে শিগগিরই নগরীতে শুরু হতে যাচ্ছে ‘টাফ অ্যাকশন’। এ অ্যাকশনের মাধ্যমে নগরীর চিহ্নিত ও তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এইজন্য তিনি দ্রুত মাদকব্যবসায়ীদের আত্মসমর্পণের আহ্বান জানান।
আজ সকাল সাড়ে ১১টায় স্টুডেন্ট কমিউনিটি পুলিশিংয়ের প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। এ আলোচনা সভার আয়োজন করে, স্টুডেন্ট কমিউনিটি পুলিশিং রাজশাহী কলেজ শাখা।
মাহাবুবর রহমান বলেন, নগরীতে মাদক ব্যবাসায়ের সঙ্গে বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠনের কিছু নেতা, পুলিশ বাহিনীর কিছু সদস্যসহ স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী লোকের একটি সিন্ডিকেট আছে। এই সিন্ডিকেট ভাঙতে হবে। মাদকের সঙ্গে জড়িত যে কাউকে ধরা গেলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
মাহাবুবর রহমান বলেন, মাদক ও জঙ্গিবাদ একটি বৈশ্বিক সমস্যা। এই সমস্যাগুলোকে কোনো একটি বাহিনীর একার পক্ষে নির্মূল করা সম্ভব না। এইজন্য সম্মিলিত প্রচেষ্টা দরকার। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে এই দুইটি সমস্যাকে নির্মূল করা সম্ভব।
স্টুডেন্ট কমিউনিটি পুলিশিং রাজশাহী কলেজ শাখার আয়োজনে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন, রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ হবিবুর রহমান, রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (পশ্চিম) আমীর জাফর, সিটিএসবির ডিসি আবু আহম্মেদ আল মামনু। সভাপতিত্ব করেন, স্টুডেন্ট কমিউনিটি পুলিশিংয়ের রাজশাহী কলেজ শাখার সভাপতি আব্দুল্লাহ আল নোমান। এসময় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের মুখপাত্র সিনিয়র সহকারী কমিশনার ইফতে খায়ের আলমসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও রাজশাহী কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।
অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিসহ স্টুডেন্ট কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সদস্যরা মিলে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটা হয়। এর আগে সকালে প্রধান অতিথি বেলুন উড়িয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর উদ্বোধন ঘোষণা করেন।