মান্দায় আধুনিক ধান চাষের কলাকৌশল বিষয়ক প্রশিক্ষণ

আপডেট: অক্টোবর ৯, ২০১৭, ১২:৪৪ পূর্বাহ্ণ

মান্দা প্রতিনিধি


নওগাঁর মান্দায় আধুনিক ধান চাষের কলাকৌশল বিষয়ক কৃষক প্রশিক্ষণ গতকাল রোববার নুরুল্লাবাদ পশ্চিমপাড়া গ্রামে অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট রাজশাহী আঞ্চলিক কার্যালয়ের আয়োজনে কৃষক প্রশিক্ষণে প্রধান অতিথি ছিলেন ব্রি রাজশাহীর প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. রফিকুল ইসলাম।
গ্রামের কৃষক শাহজাহান আলীর সভাপতিত্বে প্রশিক্ষণে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম প্রামানিক, বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট রাজশাহী আঞ্চলিক কার্যালয়ের ঊর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. হারুন অর রশিদ, কালীগ্রাম শাহ কৃষি তথ্য ও পাঠাগারের পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম শাহ, সাংবাদিক জিল্লুর রহমান, উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান, কৃষক আবদুল মতিন প্রমুখ।
কর্মশালায় মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. রফিকুল ইসলাম বলেন, গবেষণায় পাওয়া গেছে ধানের গামড় বা থোড় অবস্থায় এমওপি (পটাশ সার) ও থিয়োভিট বা সালফার জাতীয় ছত্রাকনাশক স্প্রে করলে প্রতিবিঘা জমিতে ফলন প্রায় দুই মণ বৃদ্ধি পাবে। প্রতি ৫ শতক জমিতে ১০ লিটার পানির সঙ্গে ৬০ গ্রাম পটাশ সার ও ৬০ গ্রাম থিয়োভিট মিশিয়ে স্প্রে করলেই কৃষকরা এ সুফল পাবেন। এর ফলে দেশে খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে ও খাদ্য নিরাপত্তা টেকসই হবে।
কর্মশালায় নুরুল্লাবাদ ইউনিয়নের মীরপাড়া, বাগাতিপাড়া, ডাঙ্গাপাড়া, পশ্চিমপাড়া এবং কুসুম্বা ইউনিয়নের নাড়াডাঙ্গা গ্রামের শতাধিক কৃষক অংশগ্রহণ করেন।