মান্দায় বন্যানিয়ন্ত্রণ বাঁধের সরকারি গাছ কেটে সাবাড়

আপডেট: July 2, 2020, 10:30 pm

মান্দা প্রতিনিধি:


নওগাঁর মান্দায় প্রভাবশালী কয়েক ব্যক্তির বিরুদ্ধে শিবনদের বন্যানিয়ন্ত্রণ বাঁধের লক্ষাধিক টাকা মূল্যের সরকারি তাজা গাছ কেটে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (২ জুন) সকালে ভাড়াটিয়া লোকজন দিয়ে পরানপুর ইউনিয়নের হলুদঘর এলাকা সংলগ্ন বাঁধ থেকে গাছগুলো কেটে নেন তারা।

মান্দায় এভাবে বন্যানিয়ন্ত্রণ বাঁধের সরকারি গাছ কেটে নেয়া হচ্ছে- সোনার দেশ

স্থানীয়রা জানান, শিবনদের পূর্বপাড়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডর নির্মিত বন্যানিয়ন্ত্রণ বাঁধে বিভিন্ন প্রজাতির গাছের চারারোপণ করে বনবিভাগ। দীর্ঘদিনের পরিচর্যায় গাছগুলো এখন অনেক বড়বড় হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে হঠাৎ করে হলুদঘর গ্রামের আবদুল হান্নান ও সাবেক ইউপি সদস্য এরশাদ আলীর নেতৃত্বে ভাড়াটিয়া লোকজন দিয়ে ৬-৭টি বড়বড় গাছ কেটে ফেলা হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি জানান, করাত দিয়ে গাছ কেটে তড়িঘড়ি ভ্যানগাড়িতে করে কাটা গাছ সরিয়ে নেয়া হয় ।

 

স্থানীয় ইউপি সদস্য মোতাহার হোসেন এলাচ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘বাঁধের সরকারি গাছ কাটার বিষয়টি অবহিত হয়ে ঘটনাস্থলে গ্রামপুলিশ পাঠিয়ে সেগুলো আটকানো হয়েছে। বিষয়টি আমি তাৎক্ষণিকভাবে স্থানীয় প্রশাসনকে অবহিত করেছি।’

মান্দা উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবদুল হালিম জানান, ‘সংবাদ পেয়ে সেখানে লোক পাঠিয়ে খোঁজখবর নেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

নওগাঁ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুজ্জামান জানান, ‘বন্যানিয়ন্ত্রণ বাঁধের গাছ এভাবে কেউ কেটে নিতে পারেন না। ঘটনাস্থলে পানি উন্নয়ন বোর্ডের লোক পাঠানো হয়েছে। জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’