মান্দায় মাদককারবারি যুবলীগ নেতাকে সাময়িক বহিস্কার

আপডেট: অক্টোবর ২০, ২০১৯, ১২:৫৪ পূর্বাহ্ণ

মান্দা প্রতিনিধি


মাদক কারবার ও সংগঠন পরিপন্থী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে নওগাঁর মান্দায় যুবলীগ নেতা তারেক রহমানকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে। নওগাঁ জেলা যুবলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত এক পত্রে তাকে এ বহিস্কার আদেশ দেয়া হয়।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মান্দা উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক গৌতম কুমার মহন্ত। তিনি বলেন, যুবলীগ নেতা তারেক রহমানে বেশ কিছুদিন ধরে সংগঠন পরিপন্থী কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়েন। গত বুধবার রাতে তার আড্ডাখানা থেকে মাদকদ্রব্য উদ্ধার করে পুলিশ। তার এহেন কর্মকাণ্ডে সংগঠনের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হওয়ায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।
তিনি আরো জানান, নওগাঁ জেলা যুবলীগের সভাপতি অ্যাড. খোদাদাদ খান পিটু ও সাধারণ সম্পাদক বিমান কুমার রায় স্বাক্ষরিত সাময়িক বহিস্কারের একটি পত্র তারেক রহমান বরাবর পাঠানো হয়েছে। কেন তাকে স্থায়ী বহিস্কার করা হবে আগামি ১৫ দিনের মধ্যে তার ব্যাখ্যাসহ লিখিত জবাব দিতে বলা হয়েছে ওই পত্রে।
উল্লেখ্য, গত বুধবার রাতে নওগাঁর মান্দা উপজেলার ভারশোঁ ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক তারেক রহমানের আড্ডাখানা থেকে ৫৬ বোতল ফেনসিডিল ও ৯ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এসএম হাবিবুল হাসানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ এ অভিযান চালিয়ে কালীসফা গ্রামের পুকুরপাড়ের ওই আড্ডাখানা থেকে এসব মাদক উদ্ধার করা হয়।
যুবলীগ নেতার ওই আড্ডাখানায় মাদক ব্যবসার পাশাপাশি টর্চার সেল গড়ে তোলা হয়েছিল। ওই টর্চার সেলে এলাকায় অন্ততঃ এক ডজন নিরীহ মানুষ নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। যুবলীগের বিতর্কিত এই নেতা কালীসফা গ্রামের মোবারক হোসেন মাস্টারের ছেলে।