বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

মান্দায় সংখ্যালঘুদের বাড়িতে হামলার ঘটনায় গ্রেফতার ৩

আপডেট: December 21, 2016, 12:09 am

মান্দা প্রতিনিধি


নওগাঁর মান্দায় সংখ্যালঘুদের বাসাবাড়ি ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলার ঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে সুমন কুমার ঘোষ (২৪) ও আশরাফুল ইসলামকে (২৭) গত সোমবার রাতে সিরাজগঞ্জ জেলার কাজিপুর উপজেলার শিমুলদীয়া বাজার থেকে গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারকৃত সুমন ঘোষ উপজেলার বুড়িদহ গ্রামের বিজন ঘোষের ও আশরাফুল ইসলাম বড়বেলালদহ গ্রামের আবুল কালামের ছেলে। মামলার অপর আসামি মহিদুল হক বাদশকে (৪৫) তার বাবা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোল্লা এমদাদুল হক গতকাল মঙ্গলবার সকালে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেন।
থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনিছুর রহমান জানান, গত শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার প্রসাদপুর বাজারে আওয়ামীলীগের দফতর সম্পাদক অনুপ কুমার মহন্তের বাড়ি ভাঙচুরসহ কয়েকটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলার ঘটনায় মহিদুল হক বাদশাসহ ৬জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়। মামলায় অজ্ঞাতনামা আসামি রয়েছে ৫-৬ জন। উল্লেখিত আসামিদের বিরুদ্ধে নারী নির্যাতনের পৃথক আরেকটি মামলা দায়ের করেন খুদিয়াডাঙ্গা গ্রামের রবিন্দ্রনাথ মন্ডল।
মামলার পর মান্দা সার্কেলের পুলিশ সুপার আব্দুর রাজ্জাক খানের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে আসামিদের গ্রেফতার ও আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। আসামিদের অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে বলেও জানান ওসি আনিছুর রহমান। উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোল্লা এমদাদুল হক জানান, আওয়ামীলীগের দফতর সম্পাদক অনুপ কুমার মহন্তের বাড়িসহ ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলা ঘটনা অত্যন্ত দুঃখজনক। আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে ছেলে মহিদুল হক বাদশাকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন বলে জানান তিনি।
উল্লেখ্য, হিন্দু সম্প্রদায়ের এক মেয়ের বিয়ে নিয়ে বিরোধ ও শ্মশানের জমি দখলকে কেন্দ্র করে গত শনিবার সন্ধ্যায় বাদশা ও তার বাহিনী হামলা চালিয়ে আওয়ামীলীগ নেতার বাড়ি, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানসহ ৬টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে।