বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

মিস ইউনিভার্সের মঞ্চে বাংলাদেশের ঐতিহ্য

আপডেট: December 10, 2019, 1:27 am

সোনার দেশ ডেস্ক


পরনে লাল রঙের জামদানি শাড়ি। কানে ও গলায় বাংলা বর্ণমালার অলংকার। সঙ্গে রয়েছে বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী রিকশার হুড। চোখে-মুখে খেলে যাচ্ছে স্মিত হাসির ঢেউ—এমন সাজে মিস ইউনিভার্সের মঞ্চে হাজির হয়েছেন ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ ২০১৯’ বিজয়ী শিরিন আক্তার শিলা।
পরশু শনিবার রাতে শিলা তার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি স্থিরচিত্র পোস্ট করেন। তাতে এমন দৃশ্য দেখা যায়। ছবিটি পোস্ট করে ঐতিহ্যবাহী এই সাজ-সজ্জার বর্ণনা দিয়েছেন শিলা।
এ সাজ প্রসঙ্গে শিলা বলেন, ‘নিজের দেশ ও সংস্কৃতি তুলে ধরার জন্য একটি পর্বে র‌্যাম্প আয়োজন করা হয়। এতে আমি আমাদের ঐতিহ্য জামদানি ও গহনা পরেছি। যেগুলো দ্বারা কখনো পরিবেশ দূষিত হয় না। আর আমাদের কৃষ্টি সংস্কৃতি তুলে ধরতে রিকশার হুড ব্যবহার করেছি। যেখানে আছে আমাদের ৪০০ বছরের বাঙালির ইতিহাস, সম্রাট আকবরের পঞ্জিকার ইতিহাস, পহেলা বৈশাখ, রয়েল বেঙ্গল টাইগার ও আমাদের সংস্কৃতির নানা শক্তি। সবুজ রিকশা পেইন্ট আর লাল শাড়িতে শহীদের রক্তে পাওয়া আমি আমার লাল-সবুজের দেশকে তুলে ধরতে চেয়েছি।’
গত ২৭ নভেম্বর রাতের একটি ফ্লাইটে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করেন শিলা। এ প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন তিনি। নব্বইজন প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে সেরা বিশের তালিকায় যাওয়ার জন্য সবার ভোট প্রয়োজন ছিল। শনিবার (৭ ডিসেম্বর) দুপুর ১২টায় ভোট প্রদানের সময় শেষ হয়েছে। আগামী ৯ ডিসেম্বর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ‘মিস ইউনিভার্স ২০১৯’-এর চূড়ান্ত আসর বসতে যাচ্ছে।
গত ২৩ অক্টোবর ঝলমলে আয়োজনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয় ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ ২০১৯’। সেখানে সেরা ১০ প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে বিজয়ী হন ঠাকুরগাঁওয়ের মেয়ে শিরিন আক্তার শিলা। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী বিজয়ী শিলার মাথায় মুকুট পরিয়ে দেন ‘মিস ইউনিভার্স ৯৪’ বিজয়ী সুস্মিতা সেন।