মুক্তিযোদ্ধা সেলিম হত্যাকাণ্ড || ঈশ্বরদীতে হরতাল পালনে মুক্তিযোদ্ধাদের ব্যাপক প্রস্তুতি, মামলার তদন্তভার পিবিআইতে

আপডেট: জুলাই ২৯, ২০১৯, ১২:৩৩ পূর্বাহ্ণ

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি


ঈশ্বরদীর চাঞ্চল্যকর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান সেলিম হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে এবার ঈশ্বরদীতে সর্বাত্মক হরতাল পালনের ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন মুক্তিযোদ্ধারা। আজ সোমবার ঈশ্বরদীতে আধাবেলা হরতাল পালন করতে গতকাল রোববার মুক্তিযোদ্ধা-জনতা একসঙ্গে মাইকিং, লিফলেট বিতরণ করেছেন শহরে। হরতালের সময় যাতে কোন দোকানপাট খোলা না হয়, কোন যানবাহন যেন চলাচল না করে সে ব্যাপারে গতকালই হুসিয়ারী করে দেওয়া হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধা আবদুল খালেক, ফজলুর রহমান ফান্টুসহ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের অন্যান্য মুক্তিযোদ্ধারা বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ, লিফলেট বিতরণ ও মাইকিংয়ে অংশ নেন। এসময় মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও সাধারণ মানুষও তাদের সঙ্গে যোগ দেন।
এদিকে বহুল আলোচিত সেলিম হত্যা মামলার তদন্তভার অবশেষে পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এ হস্তান্তরের জন্য নির্দেশনা এসেছে ঈশ্বরদী থানায়। গত প্রায় ৬ মাসেও আলোচিত এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত মূল পরিকল্পনাকারী ও হত্যাকারীদের গ্রেফতার করতে না পারায় পুলিশের ঢাকা হেডকোয়ার্টার থেকে পাবনা পুলিশ সুপারের কার্যালয় হয়ে গতকাল রোববার ঈশ্বরদী থানায় এসে পৌঁছেছে নির্দেশনার চিঠি।
পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) গৌতম কুমার বিশ্বাস ও ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বাহাউদ্দিন ফারুকী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
রূপপুর এলাকার মুক্তিযোদ্ধা ও পাকশী ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার জাহাঙ্গীর আলম জানান, সেলিম হত্যায় জড়িতদের গ্রেফতার ও আলোচিত এই হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচন করার দাবিতে ইতোমধ্যে রেলপথ অবরোধ, বিক্ষোভ, জাতীয় প্রেসক্লাব ও ঈশ্বরদী প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন, মানববন্ধন, পথসভা, জনসভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় আজ সোমবার ঈশ্বরদীতে অর্ধদিবস হরতাল পালনের ডাক দেওয়া হয়েছে। এছাড়া মামলাটি পিবিআইয়ের মাধ্যমে তদন্তের দাবিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, পুলিশের মহা পরিদর্শক (আইজিপি), অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) সহ সরকারের বিভিন্ন দফতরে এলাকাবাসী ও মুক্তিযোদ্ধাদের গণস্বাক্ষরিত স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।
ঈশ্বরদীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুর রহমান ফান্টু বলেন, ইতোপূর্বে এই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শহীদুল ইসলাম মামলার রহস্য উদঘাটন করতে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন। এ বিষয়ে শহীদুল ইসলাম বলেন, মামলাটির তদন্ত চলমান তাই এখনই কিছু বলতে চাইনা।
প্রসঙ্গতঃ গত ৬ ফেব্রুয়ারি রাত ৯টার দিকে মুক্তিযোদ্ধা ও পাকশী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান সেলিম রূপপুর বিবিসি বাজার থেকে রূপপুর গ্রামে বাড়িতে যাওয়ার সময় তার নিজ বাড়ির দরজার সামনে দুর্বৃত্তরা তাকে গুলি করে হত্যা করে। এখন পর্যন্ত এই ৬ মাসে আলোচিত এ হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচন করতে পারেনি পুলিশ।