মোবাইলের আইএমইআই নম্বর সংরক্ষণের অনুমতি পেলো বিএমপিআইএ

আপডেট: মে ১০, ২০১৮, ১২:৩৭ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


মোবাইল ফোনের ইন্টারন্যাশনাল মোবাইল স্টেশন ইকুইপমেন্ট আইডেন্টিটি (আইএমইআই) নম্বর সংরক্ষণ ও ডাটাবেজ তৈরির জন্য বাংলাদেশ মোবাইল ফোন ইম্পোরটারস অ্যাসোসিয়েশনকে (বিএমপিআইএ) অনুমতি দিয়েছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। গত ২৬ এপ্রিল বিটিআরসি ‘আমদানি অনাপত্তিপত্র স্বয়ংক্রিয়করণ এবং দেশে আমদানিতব্য সব মোবাইল ফোনের আইএমইআই ডাটাবেস তৈরি ও সংরক্ষণ ব্যবস্থা’ স্থাপনের অনুমতিপত্র হস্তান্তর করে। বিটিআরসি ভবনে মোবাইল ফোন ইম্পোরটারস অ্যাসোসিয়েশনের আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় তিন মাসের মধ্যে এ কাজ বাস্তবায়িত হবে। রবিবার (৬ এপ্রিল) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় বিএমপিআইএ।
বিএমপিআইএ জানায়, এর মধ্যদিয়ে দেশে বৈধভাবে আমদানি ও তৈরি সব মোবাইল ফোনের ডাটাবেজ তৈরি হবে। অবৈধ ফোনের ব্যবহার বন্ধ হবে। ফলে সরকার কয়েকশ’ কোটি টাকার রাজস্ব বেশি পাবে। এ ছাড়া, মোবাইল ফোন ক্রেতারা কেনার পূর্বে মেসেজ দিয়ে জানতে পারবেন ফোনটি বৈধভাবে আনা হয়েছে কিনা। একইসঙ্গে মোবাইল ফোনের অপব্যবহারও রোধ পাবে।
বিটিআরসি সূত্রে জানা গেছে, এ ডাটেবেজ চালু হওয়ার পর নতুন করে আমদানি করা ও দেশে নতুন তৈরি করা ফোনসেটের আইএমইআই নম্বর সংরক্ষণ করা হবে। পুরোনো ফোনগুলোর আইএমইআই নম্বর সংরক্ষণ করা হবে না।
এ প্রসঙ্গে বিএমপিআইএ-এর জেনারেল ম্যানেজার মনিরুল বাশার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘বর্তমানে দেশে যেসব মোবাইল ফোনসেট ব্যবহার হচ্ছে সেগুলোর এই মুহূর্তে ডাটাবেজের আওতায় আসছে না। তবে পরবর্তী সময়ে সরকার উদ্যোগ নিয়ে করতে চাইলে করতে পারে।’