যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা লাখ ছাড়াল

আপডেট: March 28, 2020, 12:36 pm

সোনার দেশ ডেস্ক


মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে কেবল যুক্তরাষ্ট্রেই আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ছাড়িয়ে গেছে।
শুক্রবার একদিনেই দেশটিতে ১৮ হাজারের বেশি মানুষের শরীরে কভিড-১৯ ধরা পড়েছে বলে কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে।
প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যাও এক হাজার ৬০০ পেরিয়ে গেছে।
এদিকে করোনাভাইরাসের কারণে মুখোমুখি হওয়া ক্ষতির হাত থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে অর্থনীতিকে টেনে তুলতে মার্কিন কংগ্রেসে পাস হওয়া দুই দশমিক দুই ট্রিলিয়ন ডলারের প্রণোদনা বিলে শুক্রবারই স্বাক্ষর করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প।
তার স্বাক্ষরের মধ্য দিয়ে বিলটি আইনে পরিণত হল। এই প্রণোদনা করোনাভাইরাসের আতঙ্কের মধ্যেও মার্কিন শ্রমিকদের স্বস্তি দেবে বলে ট্রাম্প মন্তব্য করেছেন।
দেশটিতে কভিড-১৯ এ আক্রান্তের সংখ্যা হু হু করে বাড়তে থাকায় চিকিৎসা উপকরণের ঘাটতি নিয়ে চিকিৎসকরা হাহাকার করছেন বলে জানিয়েছে রয়টার্স।
পরিস্থিতি মোকাবেলায় ট্রাম্প তার জরুরি ক্ষমতা প্রয়োগ করে জেনারেল মোটরসকে ভেন্টিলেটর উৎপাদনে লাগিয়ে দিয়েছেন।
যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় এ অটোমেকার কোম্পানি দরকষাকষির নামে ‘সময় অপচয়’ করছিল বলে প্রেসিডেন্ট অভিযোগও করেছেন।
মার্কিন কোম্পানিগুলোকে চিকিৎসা উপকরণ বানাতে বাধ্য করতে ট্রাম্পের ওপর কোরীয় যুদ্ধের সময়কার প্রতিরক্ষা উৎপাদন আইন সচল করার চাপ ছিল; যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট তার বদলে কোম্পানিগুলোর স্বেচ্ছা সহযোগিতার ওপর জোর দিচ্ছিলেন।
নিউ ইয়র্ক সিটি, নিউ অরলিয়ন্স, ডেট্রয়েটসহ বিভিন্ন এলাকার হাসপাতালগুলো এখন কভিড-১৯ রোগীদের ওষধ ও চিকিৎসা উপকরণ সংকটে ভুগছে।
দেশটিতে শুক্রবার পর্যন্ত এক লাখ তিন হাজারের বেশি আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। বিশ্বে মোট আক্রান্তের সংখ্যাও ছয় লাখ ছুঁইছুঁই; মৃতের সংখ্যা পেরিয়েছে ২৭ হাজার।
আক্রান্তের সংখ্যায় চীনকে ছাপিয়ে গেছে ইতালিও। ইউরোপের এ দেশটিতে করোনভাইরাস ৯ হাজারের বেশি মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে; এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য সংখ্যকই চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী।
হাসপাতালের পাশাপাশি বেকার ও ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে নগদ অর্থ সহায়তায় যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় আর্থিক প্যাকেজ শুক্রবার কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভে পাস হয়। কয়েকদিনের আলোচনা শেষে বুধবার দুই দশমিক দুই ট্রিলিয়ন ডলারের এ বিলটি সিনেটে অনুমোদিত হয়েছিল।
নিম্নকক্ষে পাসের পরপরই এটি ট্রাম্পের স্বাক্ষরের জন্য হোয়াইট হাউসে যায়। ওভাল অফিসে প্রেসিডেন্টের স্বাক্ষরের সময় সেখানে রিপাবলিকান দলের শীর্ষ আইনপ্রণেতারা ছিলেন।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ