যে কথা বন্ধুদেরও বলা বারণ

আপডেট: অক্টোবর ১, ২০১৭, ১২:০২ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


প্রেম-ভালবাসার বিভাগে প্রতিটি মানুষের প্রধান উপদেষ্টা তার বন্ধুরা। তবে প্রেমের সম্পর্কের কিছু বিষয় এই উপদেষ্টার কাছ থেকেও গোপন রাখতে হবে সম্পর্কের স্বার্থেই।
সম্পর্কবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে এই বিষয়ের উপর প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে কী ধরনের বিষয়গুলো বন্ধুদেরও বলা উচিত না তা জেনে নেওয়া যাক।
* সম্পর্কের খাতিরে আপনার ও আপনার প্রেমিক কিংবা প্রেমিকার মধ্যে ব্যক্তিগত, পারিবারিক ও কর্মক্ষেত্রবিষয়ক বিভিন্ন গোপনীয় বিষয়ে আলোচনা হবে। এই কথাগুলো বন্ধুদের সঙ্গে আলোচনা করা উচিত হবে না।
* নিজেদের মধ্যে যেসব ব্যক্তিগত ছবি আদান-প্রদান হবে তা নিজেদের মধ্যেই সীমাবদ্ধ রাখতে হবে। নিজেদের ঘনিষ্ঠ সময়গুলো নিয়ে আলোচনার ক্ষেত্রেও একই নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য।
* প্রেমিক কিংবা প্রেমিকা আপনাকে খুশি করতে কী করেছে সে বিষয়ে বন্ধুদের সঙ্গে গালগল্প করা ভালো, তবে তার একটা সীমা থাকা উচিত। প্রতিটি ছোটবড় বিষয় বন্ধুদের শোনানো তাদের বিরক্তি কারণ হতে পারে।
* প্রতিটি মানুষের ব্যক্তিগত মতামতের অধিকার আছে, আপনার প্রেমিক বা পেমিকারও আছে। তবে আপনার বন্ধু সম্পর্কে আপনার প্রেমিক-প্রেমিকার মতামত বন্ধুদের জানানো সম্পর্ক নষ্টের কারণ হতে পারে।
* প্রেমিক-প্রেমিকার দুর্বলতাগুলো বন্ধুদের জানানো উচিত হবে না। যদিও আপনি নিশ্চিত যে আপনার বন্ধুরা কখনও ওই তথ্যের অপব্যবহার করবে না, তবুও ভুল তো মানুষ মাত্রই হয়।
* নিজের মধ্যকার আর্থিক সমস্যার কথা বন্ধুদের সঙ্গে আলোনা করা যাবে না।
* প্রেয়সীর পুরানো সম্পর্ক কিংবা অতীতের কোনো ঘটনা বন্ধুদের বলা উচিত নয়। প্রিয় মানুষের অতীত আপনি মেনে নিলেও আপনার বন্ধুরা মেনে নাও নিতে পারে।
* প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে ঝগড়া মিমাংসা করার দায়িত্বটা অনেকক্ষেত্রে বন্ধুরাই পালন করেন। তবে ছোটখাট সব ধরনের কথা কাটাকাটি নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে আলাপ করাটা বাড়াবাড়ি।-বিডিনিউজ