রাজশাহীতে ‘জমি আছে, ঘর নাই’ প্রকল্পের কাজ শুরু হচ্ছে : মেয়র লিটন

আপডেট: আগস্ট ২৫, ২০১৯, ১২:৫৬ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


সিডিসির প্রকল্পর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনসহ অন্যরা-সোনার দেশ

সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, ‘জমি আছে, ঘর নাই’ প্রকল্পের আওতায় রাজশাহীতেও হতদরিদ্র মানুষদের ঘর নির্মাণ কাজ শুরু হতে যাচ্ছে। গতকাল শনিবার বিকেলে ২৯ নম্বর ওয়ার্ডের চরসাদবাড়িয়ায় প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্পের কমিউনিটি হাউজিং ডেভেলপমেন্ট ফান্ডের গৃহায়ন উন্নয়নের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন মেয়র। কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট কমিটির (সিডিসি) ৯ নম্বর নীল নদ ক্লাস্টার এই প্রোগ্রামের আয়োজন করে।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র বলেন, ২০১৩ সালে মানুষের ভুল সিদ্ধান্ত যদি না হতো, তাহলে রাজশাহী আজ পিছিয়ে থাকতো না। নিরবিচ্ছিন্নভাবে কাজ করতে পারলে রাজশাহীকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। আপনারা অন্যদের প্ররোচনায় কান দেবেন না।
সিটি মেয়র আরো বলেন, প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মানুষের স্বচ্ছল করে দেয়ার সূচনা করতে চাই। নির্বাচনী ওয়াদা অনুযায়ী নারীদের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টিকে কাজ করছি। প্রধানমন্ত্রী ইতোমধ্যে তিনটি শিল্পাঞ্চল অনুমোদন দিয়েছেন। বিসিক পেজ-২, বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল এবং চামড়া শিল্প পার্ক নামের তিনটি শিল্প এলাকায় বিপুল সংখ্যক মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ হবে। আমার নির্বাচনী ওয়াদা ছিল কর্মংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করা, ইতোমধ্যে সেই কাজের সূচনা করেছি।
রাসিকের ২৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাসুদ রানার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন, ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম উল আযিম, নির্বাহী প্রকৌশলী ও প্রকল্পের সদস্য সচিব নূর ইসলাম তুষার , চরসাদবাড়িয়া (পূর্ব) ক্লাস্টার এর ক্যাশিয়ার আরিফা আকতার পপি। এসময় কবির আরিফুল হক কুমার, মতিহার থানা আওয়ামী লীগের মো. আলাউদ্দিনসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সঞ্চালনায় ছিলেন, সিডিসি টাউন ফেডারেশনের কোষাধ্যক্ষ সাবনা বেগম। পরে নয়জনের হাতে মোট ১৮ লাখ টাকা ঋণ সহায়তার চেক তুলে দেন মেয়র। এরপর কমিউনিটি হাউজিং ডেভেলপমেন্ট ফান্ডের আওতায় এক নারীর গৃহ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন তিনি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ