রাজশাহীতে বিশ্ব ডিম দিবস উপলক্ষে শিক্ষার্থীদের খাওয়ানো হলো ডিম

আপডেট: অক্টোবর ১৪, ২০১৯, ১২:৫৬ পূর্বাহ্ণ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি


শিশু শিক্ষার্থীদের বিনামূল্য ডিম খাওয়ানো হয় সোনার দেশ

রাজশাহীতে গত শুক্রবার নানা কর্মসূচিতে পালন করা হয় বিশ্ব ডিম দিবস ২০১৯। কর্মসূচির অংশ হিসেবে বাংলাদেশ পোল্ট্রি ইন্ড্রাস্ট্রিজ সেন্ট্রাল কাউন্সিল, প্রাণিসম্পদ বিভাগ ও বাংলাদেশ লাইভস্টক সোসাইটির যৌথ উদ্যোগে গত শনিবার রাজশাহী জেলার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান যেমন রাইপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, হেলেনাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বুলনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, জুলফিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, হেলেনাবাদ-১ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কেশবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চন্ডিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পাঠানপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মীর আইউব আলী বিদ্যানিকেতন, ডিঙ্গাডোবা, রাজশাহী সরকারি শিশু সদন, বায়া, পবা এবং নগরীর চার খুঁটার মোড়ের বস্তির বাসিন্দাদের মোট আড়াই হাজার ডিম খাওয়ানো হয়।
ডিম দিবস পালন অনুষ্ঠানের আহ্বায়ক ও রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি এন্ড অ্যানিমেল সায়েন্সেস বিভাগের প্রফেসর ড. জালাল উদ্দিন সরদার এর নেতৃত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা অন্তিম কুমার, বাংলাদেশ লাইভস্টক সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের ডেপুটি চীফ ভেটেরিনারি অফিসার ড. হেমায়েতুল ইসলাম, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ও রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের পিএইচডি ফেলো ইসমাইল হক, রাজশাহীর পবা উপজেলার প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মনিরুল ইসলাম, রাজশাহী থানা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. ফজলে রাব্বি, গণ বিশ^বিদ্যালয় সাভার ঢাকা এর ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিমেল সায়েন্সেস বিভাগের প্রভাষক ডা: রিয়াজুল ইসলাম, রাজশাহীর রোভার এর রফিকুল ইসলাম মিলন সহ অন্যান্য সদস্যবৃন্দ, মীর আইউব আলী বিদ্যানিকেতন এর পরিচালক অ্যাডভোকেট মীর সফিকুুল মিলনসহ বিভিন্ন ঔষধ প্রস্ততকারী প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাবৃন্দ।
ডিম খাওয়ানোর সময় কর্মকর্তাবৃন্দ ডিম দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে বক্তব্য প্রদান করেন এবং ডিম খাওয়ার উপকারীতা সম্পর্কে ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক-শিক্ষীকা ও উপস্থিত সুধীবৃন্দকে অবহিত করেন।
এছাড়াও প্রফেসর জালাল শিক্ষক-শিক্ষীকাদের বিভিন্ন প্রশ্নের বিজ্ঞান সম্মত উত্তর প্রদান করে খামারে উৎপাদিত ডিম সম্পর্কে তাদের ভুল ধারণা দূর করার চেষ্টা করেন। যৌক্তিক কারণেই তারা দৈনন্দিন খাদ্য তালিকায় ডিম রাখার ব্যাপারে সচেষ্ট হওয়ার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ