রাজশাহী জেলা বিএনপি নেতা মন্টুসহ তিনজন রিমান্ডে

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৫, ২০১৮, ১২:৪২ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ঢাকায় গ্রেফতার রাজশাহী জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক একেএম মতিউর রহমান মন্টুসহ তিনজনকে গতবছরের ৬ মার্চ পল্টন থানার একটি মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে দুই দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছে আদালত। মন্টু ছাড়া বাকি দুজন হলেন জেলা বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য হাবিবুন্নবী দেওয়ান সাকিল ও আফজাল হোসেন।
গত শনিবার তাদের আদালতে হাজির করা হলে তাদের পক্ষে জামিনের আবেদন করেন আইনজীবী। এর বিপরীতে পুলিশের পক্ষ থেকে তাদের রিমান্ডের আবেদন জানানো হয়। শুনানি শেষে আদালত তাদের দুইদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে পুলিশ হেফাজতে পাঠায়। রিমান্ড মঞ্জুর হওয়ার পর তাদের পল্টন থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।
আইনজীবী নূরুজ্জামান তপন জানান, এই তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেছিলেন পল্টন থানার এসআই আরশাদ হোসেন। অন্যদিকে তিনি জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে জামিন নাকচ করে তিনজনকেই দুই দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেন ঢাকার মহানগর হাকিম নূরুন্নাহার। মামলায় বলা হয়, গতবছর ৬ মার্চ যুবদল নেতা রফিকুল আলম মজনু ও ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রশীদ হাবিবের নেতৃত্বে নয়াপল্টনে বিআরটিসির একটি বাস ভাঙচুর করে রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয় এবং যাত্রীদের কাছ থেকে টাকাপয়সা ছিনিয়ে নেয়া হয়। গত শুক্রবার রাত ৮টার দিকে নয়াপল্টনে বিএনপির কার্যালয়ের সামনে থেকে তাদের গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ। বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে যোগ দিতে ঢাকায় যান মতিউর রহমান মন্টু। দলীয় কার্যালয়ে সভার অংশ নেয়ার পাস নিয়ে বের হওয়ার পর গ্রেফতার হন তিনি। এ সময় তার সঙ্গে গ্রেফতার হন হাবিবুন্নবী দেওয়ান সাকিল ও আফজাল হোসেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ