রাণীনগরে বিবাদীর হুমকিতে দুই মেয়ে নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় গৃহবধূ

আপডেট: জুন ১৯, ২০১৯, ১২:৪৬ পূর্বাহ্ণ

নওগাঁ প্রতিনিধি


নওগাঁর রাণীনগরে বিবাদীদের বিভিন্ন হুমকি-ধামকীতে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বাদী বিধবা গৃহবধূ আফরোজা সুলতানা (৩৮)। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার লোহাচূড়া গ্রামে।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, জমিজমা নিয়ে নিজের দেবরের সঙ্গে দ্বন্দ্ব চলে আসছে মৃত আনোয়ার হোসেন বকুলের স্ত্রী আফরোজা সুলতানার। আফরোজার দেবর লোহাচূড়া গ্রামের মৃত আমজাদ হোসেন খন্দকারের ছেলে সুলতান আরফিন বুলু গত ১২ জুন গৃহবধূ সুলতানা ও তার মেয়েদের নামে থাকা ভিটা, বসতবাড়িসহ ২.৫০ শতাংশ জমি জোর করে দখল করতে আসে। এসময় কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে বুলু ও তার লোকজনেরা আফরোজাকে মারপিট করতে শুরু করলে আফরোজার চিৎকারে তার দুই মেয়ে এগিয়ে আসলে তাদেরকেও মারপিট করে। এর এক পর্যায়ে বুলুর হুকুমে তার লোকজন আফরোজার বাক প্রতিবন্ধি মেয়ে কলিকে হত্যার উদ্দেশ্যে বিষ খাওয়ায়। এসময় আশেপাশের লোকজন ছুটে আসলে বুলুসহ তার লোকজন পালিয়ে যায়। পরে কলিকে উদ্ধার করে প্রথমে রাণীনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। বর্তমানে কলি সুস্থ্য অবস্থায় বাড়িতে রয়েছে। কিন্তু বুলু ও তার লোকজনের বিভিন্ন হুমকি-ধামকীতে চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে আফরোজা সুলতানা ও তার মেয়েরা।
এ ঘটনায় আফরোজা সুলতানা বাদী হয়ে দেবর বুলুকে প্রধান করে ৮জনের বিরুদ্ধে গত ১৫জুন রাণীনগর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। এ বিষয়ে জানতে সুলতান আরফিন বুলুর সঙ্গে যোগযোগ করার চেষ্টা করা হলে তার মুঠোফোনে বন্ধ থাকায় যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।
এ বিষয়ে রাণীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এএসএম সিদ্দিকুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।