রাবিতে প্রেমঘটিত দ্বন্দের জেরে দুই দফা মারপিট

আপডেট: মার্চ ৬, ২০১৯, ১২:৪১ পূর্বাহ্ণ

রাবি সংবাদদাতা


রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) প্রেমঘটিত দ্বন্দের জেরে দুই দফা মারামারির ঘটনা ঘটেছে। গত সোমবার রাত ও মঙ্গলবার দুপুরে চারুকলা অনুষদ প্রাঙ্গনে এ ঘটনা ঘটে। পরে অনুষদের শিক্ষকদের মধ্যস্থতায় বিষয়টি মীমাংসা করা হয়। মারপিটের সঙ্গে জড়িত তানিম ও জাকারিয়া চারুকলা অনুষদের চিত্রকলা, প্রাচ্যকলা ও ছাপচিত্র বিভাগে তৃতীয় বর্ষে শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে জাকারিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত।
ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়, টিউলিপ নামে জাকারিয়ার এক বান্ধবী সঙ্গে দুর্ব্যবহারে অভিযোগে সোমবার রাতে তানিমের সঙ্গে জাকারিয়ার বাকবিত-া হয়। এক পর্যায়ে জাকারিয়া কাঠ নিয়ে তানিমকে মারতে এলে উত্তেজিত তানিম কাঠ ছিনিয়ে নিয়ে উল্টো জাকারিয়াকে মারধর করে। ওই দিন রাতেই বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া দুই জনকে ডেকে বিষয়টি মীমাংসা করে দেয়।
এরপর গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে তানিম ক্যাম্পাসে আসলে জাকারিয়ার বান্ধবী সিমু তানিমকে জাকারিয়ার কাছে ক্ষমা চাইতে বলে। তানিম অস্বীকৃতি জানালে সিমু তার কয়েকজন বন্ধুকে ডেকে এনে তাকে মারধর করে। পরে বিভাগের শিক্ষকরা বসে বিষয়টি সমাধান করে দেয়।
জানতে চাইলে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বলেন,‘ জাকারিয়ার সঙ্গে তানিমের কাল একটু সমস্যা হয়েছিল। পরে আমি তাদের দু’জনকে ডেকে বিষয়টি সমাধান করে দিয়েছি। তবে আজকে মারপিটের বিষয়টি আমি জানিনা।’
চারুকলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক সিদ্ধার্থ শঙ্কর বলেন, ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে সম্পর্ক জনিত কারনে সমস্যা হয়েছিল। আমরা তাদের ডেকে বিষয়টি সমাধান করে দিয়েছি এবং ভবিষ্যতে এ ধরনে কাজ করবে না এ মর্মে তারা অঙ্গিকার করেছে।
সহকারি প্রক্টর ও ওই বিভাগের শিক্ষক সহযোগী অধ্যাপক হুমায়ুন কবীর বলেন, তারা দু’জনই প্রথম বর্ষ থেকে ভালবন্ধু ছিলো। মেয়ে ঘটিত বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে দূরত্ব সৃষ্টি হয়। পর আমি ও বিভাগের সভাপতি তাদের ডেকে বিষয়টি সমাধান করে দিয়েছি।’

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ