রুয়েট শিক্ষকের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

আপডেট: আগস্ট ২০, ২০১৯, ১২:৫৮ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


রুয়েটের প্রধান ফটকের সামনে মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা-সোনার দেশ

রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) সহকারী অধ্যাপক রাশিদুল ইসলামকে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন শিক্ষার্থীরা। সোমবার সকাল সাড়ে দশটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক সংলগ্ন ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কের পাশে তারা এ কর্মসূচি পালন করেন।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, রাজশাহীতে স্থানীয় দুর্বৃত্তদের উৎপাত সবসময় বেশি থাকে। এখানে আমরা কেউ নিরাপদ না, স্থানীয় কিছু বখাটে ক্যাম্পাসে বিভিন্ন সময় শিক্ষার্থীদের হয়রানি করে। তারা ছাত্রীদেরকে উত্যক্ত করে। এদের উত্যক্ত থেকে বাদ যায়নি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকের স্ত্রীও। শিক্ষক তার স্ত্রীর উত্যক্তর প্রতিবাদ করায় তাকে লাঞ্চিত করা হয়েছে। এ সকল বখাটেরা কাদের ছত্রছায়ায় অপকর্ম করে প্রশাসনকে তা খতিয়ে দেখতে হবে।’ এ সময় শিক্ষক রাশিদুল ইসলামকে লাঞ্ছিতকারী বখাটেদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান শিক্ষার্থীরা।
মঙ্গলবার সকাল দশটায় একই দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হবে বলেও জানান শিক্ষার্থীরা। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।
‘বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ চাই’ সংগঠন : রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) শিক্ষক লাঞ্ছিত ও তার স্ত্রীকে নির্যাতনের ঘটনায় মানববন্ধন করেছে ‘বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ চাই’ সংগঠন। সেই সাথে ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণ পদক’ প্রাপ্ত শিক্ষক রাশিদুল ইসলামের উপর হামলার ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার এবং ছিনতাইকারী ও বখাটে নির্মূলের দাবি জানানো হয়।
গতকাল সোমবার দুপুরে নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্ট রাজশাহী প্রেসক্লাব চত্বর এলাকায় বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ চাই’র আহ্বায়ক আসলাম-উদ-দৌলার সভাপতিত্বে মানবববন্ধনে বক্তব্য দেন, বিশিষ্ট কলামিস্ট মুক্তিযোদ্ধা প্রশান্ত কুমার সাহা, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক বিশিষ্ট নাট্যব্যক্তিত্ব মলয় কুমার ভৌমিক, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ চাই’র সদস্য ইয়াসির আরাফাত সৈকত, রাজশাহী প্রেসক্লাবের আজীবন সদস্য গোলাম সারওয়ার, জননেতা আতাউর রহমান-ভাষাসৈনিক মনোয়ারা রহমান-জননেতা মাদার বখশ্ পরিবারের সদস্য রাজশাহী প্রেসক্লাব সভাপতি সাইদুর রহমান, সেক্টর কমান্ডার ফোরাম মহানগর সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান আলী বরজাহান, জাতীয় আদিবাসী পরিষদের দফতর সম্পাদক সুভাষ চন্দ্র হেমব্রম, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ চাই’র সদস্য সমাজ উন্নয়ন কর্মী কাজী রকিবউদ্দিন, ডা. রোকনুজ্জামান রিপন, মহিনুর হোসেন তানজির, ইফতেখারুল খালেক চপল, সেলিম রেজা, জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদ সদস্য ইউসুফ আলী, আওয়ামী লীগ নেতা মামুন অর রশিদ, জেলা তার্তী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আসাদুল হক দুখু, মহানগর পূজা উদযাপন কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মৃদুল কুমার সাহা, সাবেক ছাত্রনেতা আব্দুস সাত্তার ও সাংস্কৃতিক কর্মী নাফিউল হক নাফিউ প্রমুখ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ