লালপুরে যুবলীগের মোটরসাইকেল শোভাযাত্রায় আ’লীগের হামলার অভিযোগ

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৭, ১:৪১ পূর্বাহ্ণ

নাটোর অফিস


প্রধানমন্ত্রীর রাজশাহী সফরকে কেন্দ্র করে কেন্দ্রীয় যুবলীগের নেতাকর্মীদের নাটোরে সংবর্ধনা জানাতে যাওয়া লালপুর উপজেলা যুবলীগ নেতাকর্মীদের মোটরসাইকেল শোভাযাত্রায় হামলা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে। এসময় ৫/৭টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন লালপুর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান মিন্টু।
পরে তারা অন্য পথ দিয়ে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা করে নাটোর শহরের কানাইখালী এলাকায় যান। তবে এ ঘটনায় কেউ আহত হয় নি বলে জানান তিনি। খবর পেয়ে জেলা যুবলীগ নেতাকমীরা শহরের কানাইখালী এলাকায় সবাইকে নিয়ে অবস্থান নেয়। এদিকে লালপুর থানা পুলিশ বিষয়টি অস্বীকার করেছেন।
লালপুর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান মিন্টু জানান, আগামী ১৪ সেপ্টেম্বরে রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় যোগদান করতে মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় যুবলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ঢাকা থেকে নাটোর হয়ে রাজশাহীতে যাবেন। এমন সংবাদে লালপুর উপজেলা যুবলীগ নেতাকর্মীরা কেন্দ্রীয় নেতাদের সংবর্ধনা দিতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। সেই সিদ্ধান্ত মোতাবেক মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলা যুবলীগ কার্যালয় থেকে নেতাকর্মীরা মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা নিয়ে নাটোরের উদ্যেশ্যে রওনা দেয়। পথে উপজেলার রামকৃষ্ণপুরে পৌঁছালে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা তাদের মোটরসাইকেল শোভাযাত্রায় বাধা দেয় এবং মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে। পরে তারা সেই পথ থেকে পালিয়ে অন্য পথ দিয়ে নাটোর শহরের কানাইখালীস্থ জেলা যুবলীগ সভাপতির ব্যক্তিগত অফিসের সামনে গিয়ে উপস্থিত হন। এভাবে তাদের ওপর হামলা ও মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে কেন্দ্রীয় নেতাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যেতে বাধা দেয়ার জন্য তীব্র নিন্দা জানান তিনি।
যুবলীগ নেতাকর্মীদের মোটরসাইকেল শোভাযাত্রায় হামলা হয়েছে এমন খবরে জেলা যুবলীগ নেতাকর্মীরা শহরের কানাইখালী এলাকায় জড়ো হয়ে অবস্থান নেয়। এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী এবং জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আহাদ আলী সরকার, জেলা যুবলীগ সভাপতি বাশিরুর রহমান খান চৌধুরী এহিয়া, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আবদুল্লাহ হেল সাকিব বাকী, নাটোর নবাব সিরাজ উদ দৌল্লা সরকারি কলেজ শাখা যুবলীগের সাবেক সভাপতি বুলবুল আহমেদসহ অন্যরা।
এ বিষয়ে লালপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু ওবায়েদ জানান, লালপুরে এমন কোন ঘটনা ঘটেছে বলে তাদের জানা নেই। যদি কিছু ঘটে থাকে তাহলে থানায় অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।