শিশুশ্রম প্রতিরোধে প্রয়োজন সামাজিক আন্দোলন : মেয়র লিটন

আপডেট: জুন ১৩, ২০১৯, ১২:২২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


বিশ্ব শিশুশ্রম প্রতিরোধ দিবসের আলোচনায় বক্তব্য দেন সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন-সোনার দেশ

সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, বিগত সময়ে যৌতুকের জন্য নির্যাতন ও অ্যাসিড নিক্ষেপের ঘটনা ভয়াবহ আকার ধারণ করেছিল। সরকারের প্রচেষ্টা ও সামাজিক আন্দোলনের মাধ্যমে এসব ঘটনা কমে গেছে। এখন শিশুশ্রম প্রতিরোধে প্রয়োজন সামাজিক আন্দোলন। আমাদের সবাইকে হতে হবে সচেতনও।
গতকাল বুধবার হোটেল ওয়ারিসনে ওয়েভ ফাউন্ডেশন আয়োজিত বিশ^ শিশু প্রতিরোধ দিবস-২০১৯ ও শিশু পরিস্থিতি শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মেয়র।
আলোচন সভায় তিনি আরও বলেন, রাসিক শিশু শ্রমকে উৎসাহিত করে না। আমি শিশুদের শ্রমে নিয়োগ না দেয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।
আলোচনা সভায় প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মুর্শিদা ফেরদৌস বিনতে হাবিব। তিনি তার প্রবন্ধে উল্লেখ করেন, রাজশাহী বিভাগে শিল্পায়ন কম হওয়ায় শিশু শ্রমও কম হওয়ার কথা। কিন্তু বাস্তব চিত্রটি বৈপরিত্যে ভরপুর। দেশের ৬৪ জেলার মধ্যে নাটোর জেলায় শিশুশ্রম সবচেয়ে বেশি আর জয়পুরহাট ও পাবনা জেলা শিশুশ্রম সবচেয়ে কম। রাজশাহী জেলায় শিল্প-কারখানা কম থাকায় এ অঞ্চলে ফরমাল শিশুশ্রম দেখা না গেলেও সেমি ফরমাল ও ইনফরমাল এ বিপুল সংখ্যক শিশুকে কাজ করতে দেখা যায়।
রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের সাবেক রেজিস্ট্রার আবদুস সালামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন ওয়েভ ফাউন্ডেশনের উপ-নির্বাহী পরিচালক আনোয়ার হোসেন। সম্মানীয় অতিথির বক্তব্য দেন, সমাজসেবা অধিদফতর রাজশাহীর উপ-পরিচালক রাশেদুল কবীর, দৈনিক সোনার দেশের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আকবারুল হাসান মিল্লাত, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন শিশু অধিকার এর সমন্বয়ক অফিসার পাবলো নেরুদা প্রমুখ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ