শিশু ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় সিরাজগঞ্জে ৭ জনের যাবজ্জীবন

আপডেট: মার্চ ৬, ২০১৮, ১২:২১ পূর্বাহ্ণ

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি


সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে ১১ বছরের শিশু খুশি খাতুন ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় ৭ জনকে যাবজ্জীবন কারাদ- দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের করাদ-াদেশ দেয়া হয়। গতকাল সোমবার দুপুরে সিরাজগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ (প্রথম) আদালতের বিচারক মো. রফিকুল ইসলাম ৬ আসামির উপস্থিতিতে এ দ-াদেশ দেন।
সাজার আদেশপ্রাপ্তরা হলেন, শাহজাদপুর উপজেলার মশিপুর গ্রামের মৃত সিরাজ সরকারের ছেলে আবদুুল হাকিত (৪৬), মৃত কোরবান ব্যাপারির ছেলে হাচেন আলী (৩৮), মৃত মনছের আলীর ছেলে লোকমান (৫৩), ইউনুস আলীর ছেলে হাসান আলী (৩৩), একই উপজেলার কায়েমপুর গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে মো. রানা (৩৩), মৃত আবদুুল মজিদের ছেলে নবির হোসেন (৩৬) ও বাতিয়ারপাড়া গ্রামের খোরশেদ আলীর ছেলে রফিকুল ইসলাম (৩৩)। এদের মধ্যে রফিকুল পলাতক রয়েছেন।
সিরাজগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের এপিপি অ্যাডভোকেট আনোয়ার পারভেজ লিমন জানান, উপজেলার কায়েমপুর গ্রামের সাহেব আলীর ১১ বছরের শিশু কন্যা খুশি খাতুন ২০১০ সালের ১৬ জুলাই বিকেলে পার্শ্ববর্তী মশিপুর গ্রামের আবদুল হাকিমের বাড়িতে তার মেয়ে আখি খাতুনের (৯) সঙ্গে খেলতে গিয়ে নিখোঁজ হয়। পরদিন বিকেলে কায়েমপুর মৌজার একটি পাট খেত থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ওইদিন রাতে নিহত শিশু মা সাগরি খাতুন বাদি হয়ে আবদুল হাকিমকে একমাত্র আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্ত শেষে ৮ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন তদন্তকারি কর্মকর্তা। এদিকে বিচারকার্য চলাকালিন নবির মোল্লা নামে এক আসামি জেলহাজতে মৃত্যুবরণ করেন। শুনানি শেষে গতকাল মামলার বাকি ৭ আসামির মধ্যে ৬ জন আদালতে উপস্থিতিতে এ রায় দেন আদালত।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ