শেয়ারবাজারে বড় দরপতন

আপডেট: July 8, 2019, 12:52 am

সোনার দেশ ডেস্ক


গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে বাম জোটের ডাকা হরতালের মধ্যে দেশের শেয়ারবাজারে স্বাভাবিক লেনদেন হলেও বড় দরপতন হয়েছে।
রোববার (৭ জুলাই) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সবকটি মূল্য সূচকের পতনের পাশাপাশি কমেছে লেনদেনের পরিমান।
এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের কার্যদিবসের তুলনায় ৪৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৩৩৩ পয়েন্টে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক ১৯ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৮৯০ পয়েন্টে নেমে গেছে। আর শরিয়াহ সূচক ১১ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ২২১ পয়েন্টে।
সব সূচকের পতনের পাশাপাশি বাজারে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমেছে। ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৮৭ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার বিপরীতে কমেছে ২৩৯টি। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৭টির।
বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমার পাশাপাশি ডিএসইতে কমেছে লেনদেনের পরিমান। দিনভর বাজারে ৪১৫ কোটি ৩৩ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিটের লেনদেন হয়েছে। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৪৮৭ কোটি ৫৩ লাখ টাকা। সে হিসেবে লেনদেন কমেছে ৭২ কোটি ২০ লাখ টাকা।
টাকার অংকে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে জেএমআই সিরিঞ্জের শেয়ার। কোম্পানিটির ১৩ কোটি ৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা এশিয়ার টাইগার সন্ধানী লাইফ গ্রোথ ফান্ডের ১২ কোটি ৭৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে এবং ১২ কোটি ২৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে রানার অটোমোবাইল।
এছাড়া বাজারে লেনদেনের দিক থেকে শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে- ন্যাশনাল লাইফ ইনস্যুরেন্স, রূপালী ইনস্যুরেন্স, ইষ্টার্ণ কেবলস, সোনার বাংলা ইনস্যুরেন্স, সিলকো ফার্মা, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল এবং ন্যাশনাল পলিমার।
অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১২০ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ৩৪৯ পয়েন্টে। বাজারে হাত বদল হওয়া ২৬৫টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৭৬টির, কমেছে ১৬১টির এবং ২৮টির দর অপরিবর্তিত রয়েছে। লেনদেন হয়েছে ১৮ কোটি ১৯ লাখ টাকা।