শ্রমিকদের আয়ের বৈষম্য বাড়ছে

আপডেট: এপ্রিল ৩, ২০১৭, ১২:২৬ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা প্রফেসর ওয়াহিদউদ্দিন মাহমুদ বলেছেন, মাথাপিছু আয় ও অর্থনীতির পরিধি বাড়লেও শ্রমিকদের আয়ের বৈষম্য বাড়ছে। এর সমতা আনতে না পারলে চূড়ান্ত উন্নতি হবে না।
মঙ্গলবার বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান (বিআইডিএস) কার্যালয়ে ‘প্রাতিষ্ঠানিক ও অপ্রাতিষ্ঠানিক শ্রমিকদের বন্ধন এবং বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।ওয়াহিদউদ্দিন মাহমুদ বলেন, সেমিনারে প্রাতিষ্ঠানিক ও অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতের শ্রমজীবন নিয়ে বেশ কিছু সমস্যা স্পষ্টভাবে প্রতীয়মান। এর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, ঝুঁকিপূর্ণ কর্মপরিবেশ। এটাই বড় প্রতিবন্ধকতা। কর্মক্ষেত্রে নেয়ার আগে তাদের যে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়, তা আর বাস্তবায়ন হয় না। এমনকি অতিরিক্ত কাজ করিয়েও ওভারটাইম পরিশোধ করা হয় না শ্রমিকদের। এখান থেকে বেরিয়ে আসতে হবে।
তিনি বলেন, মাথাপিছু আয় ও অর্থনীতির পরিধি বাড়লেও শ্রমিকদের আয়ের বৈষম্য বাড়ছে। এর সমতা আনতে না পারলে চূড়ান্ত উন্নতি হবে না। সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের এ উপদেষ্টা বলেন, দেশে শ্রমিকের জীবনমান, কর্মঘণ্টা, কাজের পরিবেশসহ সব দিক এখনও অপ্রাতিষ্ঠানিক রয়ে গেছে।
এটাকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে গেলে এর উন্নতি করতে হবে। আর এর জন্য পোশাকখাতসহ সব খাতের শ্রমিকদের কথা ভাবতে হবে। তিনি আরও বলেন, দিনমজুরদের স্থায়ী চাকরি, ছোট উদ্যোক্তাদের বড় উদ্যোক্তা হওয়ার পথে প্রতিবন্ধকতাগুলো বের করে এ সমস্যার সমাধান করতে হবে। বিআইজিডির নির্বাহী পরিচালক ড. সুলতান হাফিজ রহমান সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন।