সঠিক তথ্যদানে দুর্নীতি কমবে || রাবিতে ড. গোলাম রহমান

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৭, ১:৪৩ পূর্বাহ্ণ

রাবি প্রতিবেদক


রাবিতে বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে টিআইবির প্রধান তথ্য কমিশনার ড. গোলাম রহমান ও রাবি উপচার্জ অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান-সোনারদেশ

‘মত প্রকাশ এবং সঠিক তথ্য জানার অধিকার জনগনের আছে, সেটা তাদেরকে দিতে হবে। আমি আশা করি এই বিতর্ক প্রতিযোগিতার মাধ্যমে তরুন সমাজ সেটাই উপলব্ধি করে জনগনকে সঠিক তথ্যদানে সাহায্য করবে। সঠিক তথ্যদানের সংস্কৃতি গড়ে উঠলে দেশে দুর্নীতি কমে আসবে।’ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতীয় বিতর্ক প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন টিআইবির প্রধান তথ্য কমিশনার ড. গোলাম রহমান।
তিনি আরো বলেন, মত প্রকাশের স্বাধীনতা আমাদের সংবিধানে আছে। জনগণ সেই অধিকার আদায়ের চেষ্টা করলে অন্য কোন শক্তি সেটা বাঁধা দেয়। এতে জনগণ তাদের মত প্রকাশ থেকে বঞ্চিত হয়।
তথ্য অধিকার আইন বিষয়ক বিভিন্ন ইস্যুতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে টিআইবি-গোল্ড বাংলাদেশ তৃতীয় জাতীয় বিতর্ক প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনস্ কমপ্লেক্সের সম্মেলন কক্ষে গোল্ড বাংলাদেশের উদ্যোগে তিনদিন ব্যাপি জাতীয় বিতর্ক প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান।
উদ্বোধনকালে উপাচার্য বলেন, ‘বিতর্কের মধ্য দিয়ে ভালো মানুষ হওয়া যায়। এই বিতর্ক প্রতিযোগিতা থেকে যেন সেই ভালো মানুষ বেড়িয়ে আসে আমরা সেটাই প্রত্যাশা করি।‘ তিনি আরো বলেন, বিদ্বান এবং শিক্ষিত এক জিনিস নয়। আমাদেরকে শুধু বিদ্বান নয় এর পাশাপাশি শিক্ষিত হতে হবে। কেননা শিক্ষিত মানুষ কখনোই দুর্নীতি করতে পারে না। দুর্নীতি মুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তুলতে হলে শিক্ষিত হওয়ার কোন বিকল্প নেই।
গোল্ড বাংলাদেশের সহসভাপতি তানজিমা আক্তার তমার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপউপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা, রাজশাহী মহানগর সচেতন নাগরিক কমিটির সভাপতি ও সাবেক রাবি রেজিস্ট্রার অধ্যাপক আব্দুস সালাম, গোল্ড বাংলাদেশের সভাপতি সোহ্রাব হাবিব প্রমুখ।
অনুষ্ঠান শেষে বিতার্কিদের নিয়ে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। র‌্যালিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনস্ কমপ্লেক্সের সামনে থেকে শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে আবার সেখানে গিয়ে শেষ হয়।
প্রসঙ্গত, তিনদিন ব্যাপি এ জাতীয় বিতর্ক প্রতিযোগিতায় দেশের ৩২টি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহন করছেন।